সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় কলেজের গেট ধসে নিহত৪: আহত ১৫

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলারগুল্টা শহীদ এম.মুনসুর আলী ডিগ্রি কলেজের নির্মাধীন গেট ধ্বসে এক শিশুসহ ৪জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে ৭ জন। মঙ্গলবার বিকেল চারটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার পরপরই তাড়াশ ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীরা আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতাল ও বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। নিহতরা হলো বস্তুল গ্রামের সুলতান হোসেনের ছেলে রাশিদুল ইসলামের(৩০)উপজেলার গাবর গ্রামের মৃত জাহারুল্লার ছেলে তোজাম (৫৫), বস্তুল গ্রামের সুলতান হোসেনের ছেলে রাশিদুল ইসলামের(৩০) ও বগুড়ার শেরপুর উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের শাহাদত হোসেনের ছেলে আসিফ (১২)। অন্যজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

তাড়াশ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান জানান, সপ্তাহের মঙ্গলবার গুলটা কলেজ চত্ত্বরে হাট বসে। হাটের দিন হওয়ায় গেটের সামনে লোকজন জড়ো ছিল। বিকেল চারটার দিকে হঠাৎ নির্মানাধীন গেট ধ্বসে লোকজনের উপর পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই শিশুসহ ৪জন মারা যায়। আহত হয় অন্তত ১৫ জন। সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা হতাহতদের উদ্ধার করে। তবে ওই কলেজের প্রভাষক আবুল বাসার জানিয়েছেন কলেজ অধ্যক্ষ একক সিদ্ধান্ত নিয়ে নিম্মমানের সামগ্রী ব্যবহার করে গেটটি নির্মাণ করায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

কলেজের অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান আসাদ অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, সঠিকভাবেই নির্মাণ করা হচ্ছে। তবে কিভাবে কি কারণে ভেঙ্গে পড়ল তা আমি বলতে পারবো না।

মন্তব্য লিখুন :