কাজী সাজু’র ‘ভালোবাসায় কি ভুল ছিলো’

গ্রামের মুক্ত বাতাসে তারুণ্যের হাতছানি দিয়ে বেড়ে ওঠা এক যুবক। সময়কে অবহেলা না করে সৃষ্টি সুখের উল্লাসই যার স্বপ্ন। মনের আবেগে মাধুর্য দিয়ে গুনগুন করে গান গেয়ে যাওয়া তারুণ্যের স্বপ্ন একদিন গ্রামের গন্ডি পেরিয়ে দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে পড়বে। বাবা মার মত এমনই স্বপ্ন দেখতেন বন্ধু-বান্ধব এবং গ্রামের গুণীজনেরা। আজ স্বপ্ন পূরণের দিন। বলছিলাম ছোটবেলা থেকেই গান পাগল কাজী সাজু'র কথা।

নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার গোড়খায়তারা (দঃফার্শিপাড়া) গ্রামের বেলাল হোসেনের পরিবারে

কাজী সাজু'র জন্ম। তারা এক ভাই এব বোন। আদরের ছোট বোন রাজউকে ইন্টারমিডিয়েটে পড়াশোনা করছে। মা গৃহিনী শাহানাজ পারভীন। যতটুকু জানা যায় মা গুনগুন করে গান গাইতেন । মায়ের এই শৈল্পিক কন্ঠ ও ইচ্ছা স্রষ্ঠা যেন সাজু'র কন্ঠে জড়িয়ে দিয়েছে।

তাই বাল্যকালেই গানের ওস্তাদের সরনাপন্ন হন তিনি। শ্রদ্ধেয় গুরু জিন্নাহ চৌধুরী এবং বড় ভাই মোস্তফা কামালের হাত ধরে শুরু হয় পথ চলা। এরপর একে একে চারজন ওস্তাদের কাছে তালিম নেন। খুব অল্প সময়ে আয়ত্ব করেন গানের বিভিন্ন দিক। এরপর শিল্পকলা একাডেমি থেকেও গান শিখেন। দখলদারিত্ব আছে প্রায় দেশীয় সব বাদ্যযন্ত্রেই। নিয়ম করেই গানের চর্চা চালিয়ে যান তিনি। দীর্ঘদিনের সঙ্গীত সাধনা এবার সার্থক হচ্ছে সাজু’র। প্রকাশ পেতে যাচ্ছে তার প্রথম মৌলিক গান ‘ভালোবাসায় কি ভুল ছিলো’।

নিজের কথা, সুর আর তরিক এর সঙ্গীতায়োজনে এই গান কন্ঠে তুলেছেন সাজু। আল মাসুদ নির্মাণ করেছেন গানটির ভিডিও। গানটি প্রকাশ করছে ধ্রুব মিউজিক স্টেশন।

উচ্ছ্বসিত কাজী সাজু গানটি প্রসঙ্গে জানালেন, ‘আমার জীবনের স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে এই গান প্রকাশের মাধ্যমে। সেই স্বপ্নের দুয়ার খুলে দিয়েছে ধ্রুব মিউজিক স্টেশন। কৃতজ্ঞতা ধ্রুব গুহ দাদার প্রতি। সব শ্রেনীর শ্রোতার কথা চিন্তা করেই গীতিকবিতাটি লিখেছি ও সুর করেছি আমি নিজেই । আশাকরছি সঙ্গীতায়োজনটি শ্রোতাদের প্রশান্তি দিবে। গানটির ভিডিওটিও ভালো লাগবে সবার।

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন এবং কাজী সাজু সুত্র জানায়, ১৩ আগস্ট বৃহস্পতিবার তাদের ইউটিউবে অবমুক্ত করা হবে ‘ভালোবাসায় কি ভুল ছিলো’ গানটির ভিডিও। এছাড়াও গানটি শুনতে পাওয়া যাবে জিপি মিউজিক, বাংলালিংক ভাইব, রবি স্প্ল্যস এবং স্বাধীন মিউজিক অ্যাপ এ ।

জানা যায় তরুণ কণ্ঠশিল্পী সাজু ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইট নামে একটা ব্যান্ডে তিন বছর কাজ করবার পর ২০১৬তে ডে নাইট নামে একটি ব্যান্ড দল গঠন করে যার প্রতিষ্ঠাতা সে নিজেই।

এ বিষয়ে কথা হলে আবেগ জড়ানো কন্ঠে তরুণ কণ্ঠশিল্পী কাজী সাজু বলেন, আমি আমার স্বপ্নকে বাস্তব রূপে দেখতে চাই। আমি প্রতিনিয়ত শিখছি। নিজের কথা, সুরের পাশাপাশি গানের কম্পোজিশন করছি। আমি সঙ্গীতকে নিয়ে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চাই।

তিনি আরো বলেন, আমার সৃষ্টি যদি কারো পছন্দ হয় যদি কেউ আমার গান নিয়ে কাজ করতে চায় তবে আমি তা করে দেবার চেস্টা করব।

মন্তব্য লিখুন :