ভালোবাসা দিয়ে ফাল্গুণের বসন্তবরণ

এসেছে ঋতুরাজ বসন্ত। সাথে বিশ্ব ভালবাসা দিবস। তাইতো প্রকৃতিতে বইছে ফাগুনের হাওয়া। কোকিলের কণ্ঠে বাজছে বসন্তের আগমনী গান। গাছে গাছে পলাশ আর শিমুলের মেলা। এসব কিছুই জানান দিচ্ছে আজ পহেলা ফাল্গুন।

এবার ভালোবাসার হাত ধরেই এসেছে বসন্ত। বাঙালির বসন্ত ও পাশ্চাত্য সংস্কৃতির ভালোবাসা দিবস  দু’টোই এবার একইদিনে হওয়ায় ভালোবাসার রঙ ছড়িয়েছে বসন্তবরণের উৎসবজুড়ে। দেশে প্রথমবারের মতো ঘটছে এমন ঘটনা। বসন্তবরণ ও ভালবাসা দিবসে তাই বাড়তি আনন্দ উচ্ছ্বাসে মেতেছেন রাজধানীসহ দেশবাসী।

আজ (শুক্রবার) সকাল ৭টা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুলতলায় শুরু হয়েছে বসন্তবরণের বর্ণিল আয়োজন। সকাল সাতটায় সুস্মিতা দেবনাথ ও সহশিল্পীদের ধ্রুপদি সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় দিনের আনুষ্ঠানিকতা।

জাতীয় বসন্ত বরণ উদযাপন পরিষদ এই আয়োজন করেছে। উৎসবকে ঘিরে সকাল থেকেই সেখানে লাল হলুদ পোশাকে নিজেদের সাজিয়ে জড়ো হয়েছেন সব বয়সী মানুষ। সেখানে নৃত্য আর গানের তালে আনন্দঘন সময় কাটছে তাদের।

বকুলতলায় একক আবৃত্তি ও একক সংগীতের মধ্য দিয়ে চলছে মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা। জাতীয় বসন্ত বরণ উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মানজার চৌধুরী সুইট জানান, এই আয়োজন গত ২৫ বছর ধরে পরিচালিত হয়ে আসছে। সারাদেশের ঋতু উৎসবগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম ঋতু উৎসব।

আয়োজকরা জানান, সকালের পর্বে সংগীত পরিবেশন করেন লাইসা আহমেদ লিসা, খাইরুল আনাম শাকিলসহ অনেক শিল্পী। গানের সাথে ছিলো একক ও দলীয় নৃত্য অনুষ্ঠান, আবৃত্তি আয়োজন। এছাড়া আবির বিনিময় ও প্রীতি বন্ধনী পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুলতলা ছাড়াও সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবর মঞ্চ এবং উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের উন্মুক্ত মঞ্চে এবং বিকাল ৪টা থেকে রাত পর্যন্ত বসন্তবরণের বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন রয়েছে।  এছাড়া ওয়াইজ ঘাট এলাকার বুলবুল ললিতকলা অ্যাকাডেমি মাঠেও রয়েছে বসন্তবরণের নানা আয়োজন।

মন্তব্য লিখুন :


আরও পড়ুন