লেবাননে লকডাউনের মেয়াদ ১২ এপ্রিল পর্যন্ত বৃদ্ধি

লেবাননে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে এবং দেশটির অভিবাসী ও স্থানীয় নাগরিকদের সুরক্ষা দিতে ইতোমধ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে দেশটির সরকার।

বৃহস্পতিবার (২৬মার্চ) দেশটির বাবদা প্যালেসে (সংবাদ ভবন) রাষ্ট্রপতি মিশেল আউনের সভাপতিত্বে এই কাউন্সিলের অধিবেশনের মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক হয়েছে ।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব, একাধিক মন্ত্রী, সেনাপ্রধান জেনারেল জোসেফ আউন এবং সুরক্ষা ও সামরিক সরঞ্জামাদি প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৫ ই মার্চ ঘোষণা দিয়েছিল যে ২৯মার্চ পর্যন্ত লকডাউন চলবে, কিন্তু করোনাভাইরাস রোগীর সংখ্যা বাড়ার কারণে লকডাউন এর মেয়াদ বাড়ানো হয়।

বর্তমানে চলমান লকডাউনের আওতাভুক্ত মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডারের (এমসিও) সময়সীমা বাড়িয়ে আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত রাখার সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রিপরিষদ ।

দেশটিতে গত ২৪ ঘন্টায় ৩৫ জান কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছে । এ নিয়ে সর্বমোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৬৮ জনে। মৃত্যুবরণ করেছেন ৬ জন।

দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিরোধের জন্য সরকার সবাইকে গৃহে অবস্থান করতে বলেছে। এক সাথে চলাফেরা করা, কর্মস্থলে যাওয়া সব বন্ধ করে দিয়েছে।

চলমান লকডাউনের আওতাভুক্ত মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডারের (এমসিও) নির্দেশনা অমান্য করবে তাদের জরিমানা দিতে হবে অন্যথায় ৩ বছরের জেল অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হতে পারে।

এদিকে এ ভাইরাসে লেবাননে এখন পর্যন্ত কোনো বাংলাদেশি নাগরিক আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া না গেলেও রয়েছেন চরম আতঙ্কে।

এছাড়াও লেবাননে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সর্বোচ্চ সতর্কভাবে স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পরামর্শ দেয় বাংলাদেশ দূতাবাস। একই সঙ্গে সবাইকে ঘরে থাকারও আহ্বান জানানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :