ট্রাম্পকে হোয়াইট হাউস ছাড়া করতে প্রস্তুত বিক্ষোভকারীরা

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনে হেরে গেলে তাকে হোয়াইট হাউস ছাড়া করার জন্য তৈরি হচ্ছেন বিক্ষোভকারীরা। হেরে গেলে বেঁকে বসতে পারেন, প্রত্যাখ্যান করতে পারেন নির্বাচনের ফলাফল- এমন ইঙ্গিত আগেই দিয়েছেন ট্রাম্প।

নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে সংশয় তৈরি করার মতো কথাও বলেছেন তিনি। এ কারণে ট্রাম্প নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে বসলে যাতে তাকে টেনেহিঁচড়ে নামানো যায় সে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন অনেক প্রতিবাদী। এএফপি।

ট্রাম্পকে হোয়াইট হাউস ছাড়া করার প্রস্তুতি যারা নিচ্ছেন তাদের একজন সিয়ান এল্ডরিজ। ‘সবচেয়ে বাজে পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন’ বলে জানান তিনি।

প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের কাছে ট্রাম্প হেরে গেলে যদি ফলাফল মেনে নিতে না চান তবে তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদের প্রস্তুতি নেয়া সংগঠকদের একজন ৩৪ বছর বয়সী এল্ডরিজ। ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে হেরে গেলে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন কিনা- এমন প্রশ্নের স্পষ্ট জবাব বারবার এড়িয়ে গেছেন ট্রাম্প।

বিপরীতে তিনি বলেছেন, ডাকযোগে পাঠানো লাখো ভোটে বড় ধরনের প্রতারণা ও কারচুপির চেষ্টা করা হচ্ছে। এর উদ্দেশ্য হচ্ছে তাকে পরাজিত করে বাইডেনকে ক্ষমতায় বসানো।

নির্বাচনের ফল নিয়ে ট্রাম্পের এমন সংশয় তৈরির কারণে সাধারণ মার্কিন ভোটারদের পাশাপাশি অধিকার নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন গ্রুপ ও মানুষের মধ্যে উদ্বেগ তৈরি হচ্ছে। এ কারণেই বাজে পরিস্থিতির জন্য তাদের প্রস্তুতি।

সাবেক ডেমোক্র্যাট কংগ্রেস প্রার্থী ও সমকামী বিয়ের আইনি অধিকার আদায়ের সফল একজন কর্মী এল্ডরিজ বলেন, ‘দায়িত্বশীল একজন প্রেসিডেন্ট হেরে গেলে নির্বাচনের ফল মেনে নেবেন কিনা এবং শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন কিনা, তা নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হওয়া আমেরিকার রাজনীতিতে নজিরবিহীন ঘটনা।’

এল্ডরিজ বর্তমানে নিউইয়র্কভিত্তিক ট্রাম্পবিরোধী সংগঠন স্ট্যান্ড-আপ আমেরিকার ইনচার্জ।

তার মতে, এটি এমন একটি কাজ যার আশা আমরা কখনও করিনি। কিন্তু আমাদেরকে করতে হচ্ছে ট্রাম্পের আচরণের কারণে। তিনি বারবার বলেছেন, তিনি ফলাফল মেনে না-ও নিতে পারেন।

ফলে বিভিন্ন ক্ষেত্রের অধিকারকর্মী ও সংগঠকরা ট্রাম্প বিগড়ে গেলে তাকে নামাতে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। প্রটেক্ট দ্য রেজাল্টস নামের জোট তৈরি হয়েছে এই উদ্দেশ্যে। এই গ্রুপ ১শ’র বেশি সংগঠককে একত্রিত করেছে।

গ্রুপে সমকামী অধিকার থেকে নিয়ে ট্রাম্পবিরোধী রিপাবলিকান সমর্থকদের দলও আছে। এরই মধ্যে লাস ভেগাস থেকে নিউইয়র্ক, মেইনে থেকে ফ্লোরিডায় ২৫০টির বেশি র‌্যালি করেছে তারা। লাখো মানুষের প্রতিনিধিত্ব তারা করছেন বলে দাবি এল্ডরিজের।

ইরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা: ইরানের ওপর ফের নিষেধাজ্ঞা দিল যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগ এনে বৃহস্পতিবার পাঁচটি ইরানি প্রতিষ্ঠানের ওপর এই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন।

চলতি মাসে তেহরানের ওপর ওয়াশিংটনের দ্বিতীয় নিষেধাজ্ঞা এটা। যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়া ও ইরান হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে- মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইর এমন রিপোর্টের পরই চাপে ফেলতে নতুন এই নিষেধাজ্ঞা দেয়া হল।

মন্তব্য লিখুন :