সমস্যার আবর্তে তাঁত শিল্প (ভিডিও)

তাঁত শিল্প, বাংলাদেশের অন্যতম পুরোনো কুটির শিল্প। আর তাঁত শব্দটি শুনলেই আরও একটা শব্দ যেন মাথায় এসে পরে, তা হল টাঙ্গাইল। টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি, বিশ্বজুড়ে যা সমাদৃত এবং বিখ্যাত। 

উনবিংশ শতাব্দীর শেষের দিকে টাঙ্গাইলে তাঁত শিল্প প্রসার পায়। তখনকার তাঁত কারিগরদের আদি নিবাস ছিল ঢাকা জেলার ধামরাই এবং চৌহাট্টায়। পরবর্তীতে তারা স্থানান্তরিত হয়ে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার, সন্তোষ এবং ঘারিন্দায় বসবাস শুরু করে। 

শুতি শাড়ি, সফট সিল্ক, হাফ সিল্ক, শুতি জামদানিসহ আরও বিভিন্ন প্রকারের তাঁত পন্য তৈরী করা হয় এই কারখানা গুলোতে। ৩০০ থেকে ৩০ হাজার টাকায় পাওয়া যায় এই তাঁতের শাড়ি। ইন্ডিয়া, আমেরিকা, জাপান, মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি রপ্তানি করা হয়

সর্বশেষ আদম শুমারী অনুযায়ী বর্তমানে সর্বমোট ৩২৫০০০ তাঁতি-মালিক ও ব্যবসায়ী ক্রেতা এই পেশার সাথে সম্পৃক্ত থাকলেও তাঁত শিল্পের বাস্তবিক চিত্র ভিন্ন।

কারখানার মালিক এবং তাঁত কারিগরদের ভাষ্যমতে কাঁচা মালের মূল্য বৃদ্ধি এবং পাওয়ার লুমের ব্যবহার যদি বন্ধ না করা হয়! তাহলে অচিরেই তাঁত শিল্প বিলুপ্ত হয়ে নাম লেখাবে হারিয়ে যাওয়া অন্যান্য ঐতিহ্যর খাতায়।

বিস্তারিত ভিডিও রিপোর্টে....

মন্তব্য লিখুন :


আরও পড়ুন