১৫ বছর পর পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে ইংল্যান্ড!

করোনা পরিস্থিতিতে আর্থিক বিপদের মুখে পড়েছিল ইংল্যান্ড। সেই সময় জৈব সুরক্ষার সব নিয়ম মেনে ৩৫ সদস্যের বিরাট বহর নিয়ে ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিল পাকিস্তান।

স্কোয়াডের ১০ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসার পরও এই সফর স্থগিত করেনি তারা।

এক মাস সেখানে অবস্থানের পর গত ৫ আগস্ট থেকে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ এবং ৩ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে পাকিস্তান।

সেই কৃতজ্ঞতা থেকেই এবার ফিরতি সফরের কথা ভাবছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ইতিমধ্যে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সঙ্গে সফর নিয়ে ইসিবির আলোচনা শুরু হয়েছে।

আলোচনা ফলপ্রসূ হলে আগামী বছরের জানুয়ারিতেই পাকিস্তান সফরে যেতে পারে মরগান-বেন স্টোকসের দল। সফরে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ সফর হলে ১৫ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে পা রাখবেন ইংলিশরা। সর্বশেষ ২০০৫ সালে পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল ইংল্যান্ড।

এর পর ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলংকা ক্রিকেট দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার পর খেলোয়াড়দের নিরাপত্তার স্বার্থে বড় কোনো দলই পাকিস্তানে যেতে রাজি হয়নি।

তবে ইমরান খান সরকার গঠনের পর পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক হয়ে এসেছে। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি দেশ নির্বিঘ্নে পাকিস্তান সফর করে এসেছে।

তা ছাড়া আইসিসির ফিউচার ট্যুর প্ল্যান (এফটিপি) অনুসারে ২০২২ সালে পাকিস্তানে সফরের কথা রয়েছে ইংল্যান্ডের। এসব বিচারে পাকিস্তানে ইংল্যান্ডের সফর নিয়ে এবার আলোচনা হতেই পারে।

এ বিষয়ে ইসিবি নিশ্চিত করেছে, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) পক্ষ থেকে তারা আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ পেয়েছেন। পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে তারা বেশ আন্তরিকও। ফলে আগামী বছরের শুরুতে সীমিত ওভারের সিরিজ খেলতে ইংলিশরা পাকিস্তানে যেতে পারে।

মন্তব্য লিখুন :