বগুড়ায় বিয়ে বাড়ী থেকে কনে লাপাত্তা

বগুড়ার আদমীঘি উপজেলায় বিয়ের আসর থেকে কনে আতিয়া আক্তার (১৫) লাপাত্তা হওয়ার চাঞ্চল্যকর খবর পাওয়া যায়।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় উপজেলার নসরতপুর ইউনিয়নের অর্জুনগাড়ী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, আদমদীঘি’র অর্জুনগাড়ী গ্রামের প্রবাসী ওছমান আকন্দের মেয়ে ধামাইল মাদরাসার ৯ম শ্রেনির ছাত্রী আতিয়া আক্তারের সাথে তার মামাতো ভাই জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার মোহনপুর (আমানপুর) গ্রামের রফিকুল ইসলাম বিদুৎতের ১০ দিন আগে পারিবারিক ভাবে বিয়ের কথা ঠিক হলে ২৭ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার বিয়ের দিন ধার্য হয়। সেইমতে বরসহ তার লোকজন বিয়ে সম্পন্ন করতে দুপুরে অর্জুনগাড়ী গ্রামে কনের বাড়ি আসেন।

এদিকে বাল্যবিয়ে হলেও বর পক্ষের লোকজনকে কনের আপায়ন করতে দেন। এই সুযোগে আতিয়া আক্তার কৌশলে কনে সেজে উধাও হয়। খবরটি ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় চাঞ্চল্যকর সৃষ্ঠি হয়। পরে বর ও তার লোকজন ফিরে যায়।

কনের মা আকলিমা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমার মেয়ে আতিয়া আক্তার প্রতিবেশি মিন্টু নামের এক যুবকের সাথে পালিয়ে যায়। আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জালাল উদ্দীন বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই  তবে খতিয়ে দেখছি।

মন্তব্য লিখুন :


আরও পড়ুন