চাকুরির প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ

ধর্ষক জুয়েল শেখ

বাগেরহাটের রামপালে চাকুরির প্রলোভন দেখিয়ে নিজ বাড়িতে নিয়ে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে মোংলার আন্ধারিয়া থেকে ধর্ষক যুবককে আটক করেছে মোংলা থানা পুলিশ। 

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার শ্রীফলতলা গ্রামের এক তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে আন্ধারিয়া গ্রামের বাসিন্দা তরিকুল শেখের পুত্র জুয়েল শেখ (২০)। তরুণীকে ভালো চাকুরির প্রলোভন দেখিয়ে নিজ বাড়ীতে আসতে বলে জুয়েল।পরে গত (৩ মার্চ) বিকেলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে জুয়েল শেখের বাড়ীতে যায় তরুণী। এরপর রাতে তাকে আটকে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে জুয়েল। 

পরে (৪ মার্চ) সকালে এক পরিচিত ব্যক্তির সহযোগিতায় বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি হন ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী। ওই দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তরুণী মোবাইল ফোনে বিষয়টি বাগেরহাট জেলা পুলিশ সুপার একেএম শহিদুল হককে জানান। তাৎক্ষনিকভাবে হাসপাতালে তার জন্য খাবার ও কাপড় পাঠান এবং সকল সহায়তার আশ্বাস দেয় জেলা পুলিশ।

তরুণীর দেয়া তথ্য মতে পুলিশ সুপারের নির্দেশে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে ৩ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষক জুয়েল শেখকে মোংলা থেকে আটক করতে সক্ষম হয় মোংলা থানা পুলিশ। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ধর্ষক জুয়েল শেখ মোংলা থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি ইকবাল বাহার। 

মন্তব্য লিখুন :