বাবাকে বাঁচাতে জবি শিক্ষার্থীর আকুতি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মোঃ তামজিদ রাফির বাবা করোনা আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছেন। চিকিৎসকরা তাকে দ্রুত আইসিইউতে নেয়ার নির্দেশনা দিয়েছে। 

তার বাবার এই চিকিৎসার খরচ যোগাতে সকলের নিকট সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন রাফি ও তার বন্ধুরা।

জানা যায়, রাফির বাবা বেশ কয়েকদিন যাবত কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে নারায়ণগঞ্জ খানপুর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তিনি দীর্ঘ ৮-৯ বছর ধরে হার্টের সমস্যায় ভুগছেন। বর্তমানে তার ফুসফুস ৫০% নষ্ট হয়ে গেছে। ২৪ ঘণ্টা অক্সিজেন দিয়ে রেখে ডাক্তাররা রাফির বাবাকে দ্রুত আইসিইউ তে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

এমতাবস্থায়, তার জরুরি উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। কিন্তু রাফির পরিবারে উপার্জনক্ষম কেউ নেই। যা টাকা ছিল বাবার চিকিৎসার পিছনে এতদিন খরচ হয়ে গিয়েছে। 

বলা বাহুল্য ওই শিক্ষার্থীর মাও কিছুদিন আগে করোনায় দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। বর্তমানে মোঃ তামজিদ রাফি তার বাবার উন্নত চিকিৎসার জন্য সকলের একান্ত সর্বোচ্চ সহযোগিতা চেয়েছে।

রাফি তার বাবার চিকিৎসার জন্য সকলের কাছে অনুরোধ করে বলেন, 'অভাবের সংসারে বাবার চিকিৎসার ব্যয় বহন করা আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়। আমি আপনাদের কাছে আমার অসুস্থ বাবার চিকিৎসার জন্য সাহায্য চাই। আপনারা সকলে সহযোগিতা করলে আমি আমার বাবাকে আবার বাবা বলে ডাকতে পারবো। এমতাবস্থায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও সমাজের বিত্তশালীদের সাহায্য ছাড়া বাবার চিকিৎসা করানো সম্ভব না। এখন আপনাদের সাহায্যই আমার অসুস্থ বাবার চিকিৎসার শেষ ভরসা।"

এ ব্যাপারে পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোঃ নূরে আলম আবদুল্লাহ বলেন, 'এই ব্যাপারে আমি অবগত আছি। শিক্ষার্থীর পরিবার আমাকে বলেছিলো ঢাকায় বেড ম্যানেজ করে দিতে, কিন্তু আপনারা জানেন বেড পাওয়াই মুশকিল, 'আমার আত্মীয়ের জন্যও কোনো বেড খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা। তাছাড়া ওর পরিবারের আর্থিক অসহায়ত্বের বিষয়টাও জানি। আমরা নিজেরাও চেষ্টা করছি সমস্যা যতটুকু সমাধান করা যায় ততোটুকু করতে।'

শিক্ষার্থী মোঃ তামজিদ রাফির সাথে যোগাযোগের মাধ্যম:

মোবাইলঃ 01852059425

বিকাশঃ 01852059425

নগদঃ 01852059425

রকেটঃ 017375969091

মন্তব্য লিখুন :