নওগাঁয় কৃষকের ধান কাটা ও মাড়াই করলেন যুবলীগ

নওগাঁর চন্ডীপুর ইউনিয়নে এক কৃষকের জমির ইরিবোরো ধান কাটা ও মাড়াই করে দিয়েছে জেলা যুবলীগ।

শনিবার (২৪ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সদর উপজেলার চন্ডীপুর ইউনিয়নের আনন্দবাজার সড়কের পাশে ধান কাটা হয়। এতে নেতৃত্ব দেন জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বিমান কুমার রায়। ধান কাটা মাড়াইয়ে প্রায় ২৫ জন যুবলীগের নেতাকর্মীরা অংশ নেয়।

জানা যায়, সদর উপজেলার চন্ডীপুর ইউনিয়নের আনন্দবাজার মহল্লার কৃষক নজরুল ইসলাম। এক বিঘা জমিতে ইরিবোরো ধান কাটা মাড়াইয়ের সময় হয়েছে। শ্রমিকদের মজুরি দেয়ার মতো সামর্থ্য নাই। পরে তিনি যুবলীগের সঙ্গে যোগাযোগ করলে ধান কাটা মাড়াইয়ের জন্য আশ্বস্থ করা হয়। শনিবার সকালে বিমান কুমার রায় ধান কাটার কাস্তে নিয়ে প্রায় ২৫ জন যুবলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে কৃষক নজরুল ইসলামের জমিতে হাজির হন। দুপুর পর্যন্ত ধান কেটে পরে কৃষকের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে মাড়াই করে দেয়া হয়। 

কৃষক নজরুল ইসলাম বলেন, একদিকে জমির ধান পেকে গেছে। গত কয়েকদিন থেকে আবহাওয়া খারাপ যাচ্ছে। ঝড় বৃষ্টির ভয় করছিলাম। ঝড়বৃষ্টি শুরু হলে ধানের ক্ষতি হয়ে যাবে এবং বিপাকে পড়তে হবে। বর্তমান বাজরে শ্রমিকদের মজুরিও বেশি। পরে যুবলীগের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা আমার জমির ধান কাটা ও মাড়াই করে দিবে বলে আশ্বস্থ করেন। আমি খুবই খুশি। কোন মজুরি ছাড়াই তারা ক্ষেত থেকে ধান বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে মাড়াই করে দিয়েছেন।

নওগাঁ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বিমান কুমার রায় বলেন, কৃষকরা কষ্ট করে তাদের সোনার ফসল ফলান। আর সেই ফসল যদি প্রাকৃতিক কোন কারণে নষ্ট হয়ে যায় তার কষ্টের অন্ত থাকে না। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল এর নির্দেশে কৃষকদের সুবিধার জন্য ধান কেটে দিয়েছি। শ্রমিক সংকট থাকায় অনেক কৃষক তাদের পাকা ধান নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন। যদি কোন কৃষক শ্রমিকের অভাবে ধান কাটতে না পারেন আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাদেরকে আমরা যুবলীগের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করবো।

মন্তব্য লিখুন :