কালিগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধ, মা মেয়েকে কুপিয়ে জখম

সাতক্ষীরায় জমি সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আদালতের আদেশ কে উপেক্ষা করে মা মেয়েকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে সন্ত্রাসীরা।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) বেলা ১১টার সময় সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নের পীরগাজন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

জানা যায়, এই ঘটনায় গুরুত্বর আহত উপজেলার পীরগাজন গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী খায়রুন্নেছা (৪৫) এবং তার কন্যা আরিফা খাতুন (১৭) কে ঐ দিনে কালিগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এব্যাপারে কালিগঞ্জ উপজেলার পীরগাজন গ্রামের গোলাম রব্বানীর পুত্র ভুক্তভোগী আব্দুর রাজ্জাক বাদী হয়ে একই গ্রামের এলাই বক্সস গাজীর পুত্র মুছা গাজী (২৮), তরিকুল ইসলাম (২৫), আব্দুল মালেক (৪৫), আব্দুল কাদের এর নামে ঐ বৃহস্পতিবার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। যার নং-৮৭৬। পরবর্তীতে গতকাল একই অভিযোগে পৃথক ভাবে আব্দুর রাজ্জাক বাদী হয়ে আরও একটি এজাহার দাখিল করেছে। 

থানা এবং পীরগাজন গ্রামের শহিদুল, মফিজ, মাদকাটী গ্রামের তরিকুল, আড়ংগাছা গ্রামের আলমগীর সহ একাধিক ব্যক্তি  জানান, পীর গাজন মৌজার জে, এল ১২৯, এস, এ ৭৪, ডিপি ৬৩নং খতিয়ানের ২০৮ দাগের ২৬ শতক জমি নিয়ে পীর গাজন গ্রামে আব্দুর রাজ্জাক গংয়ের সঙ্গে একই গ্রামের এলাই বক্স গাজীর পুত্র মুছা গংয়ের সঙ্গে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছে। উক্ত জমি নিয়ে মুছা গং বাদী হয়ে গত ২৪-০৬-২০১৮ ইং তারিখে সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেুট আদালতে পিটিশান ১০৩৯ নং এ ১৪৫ ধারায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলাটি তদন্তের জন্য বিজ্ঞ আদালত সহকারী কমিশনার (ভূমি) কালিগঞ্জ কে নির্দেশ দেন।

বিজ্ঞ আদালতে নির্দেশের গত ৪ জুন ২০১৮ ইং তারিখে সহকারী কমিশনার ভূমি আদালতে আব্দুর রাজ্জাকের পক্ষে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করলেও মুছা গংয়ের দায়ের করা মামলা গত ১৯ অক্টোবর ২০২০ ইং তারিখের আদেশে বিজ্ঞ আদালত স্ব স্ব দখলে শান্তিপূর্ণ সহ অবস্থান করতে আদেশ দেন। 

এদিকে আদালতের আদেশ কে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে গত বৃহস্পতিবার পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আব্দুর রাজ্জাক বাড়িতে না থাকার সুযোগে মুছা, তরিকুল, জাকির, আব্দুল মালেক, আব্দুল কাদের, সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে অতর্কিত ভাবে জোর পূর্বক বাড়িতে প্রবেশ করে বাড়ির মালিক আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী খায়রুন্নেচা এবং কন্যা আরিফা কে পিটিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে বাড়ি ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে লক্ষাধিক টাকার স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। তাদের ডাক চিৎকারে গ্রামবাসী এগিয়ে এসে ৯৯৯ ফোন করলে থাকা হতে সহকারী উপ-পরিদর্শক তপন সরকার দ্রুত ঘটনাস্থলে যেয়ে আহতদের উদ্ধার করে কালিগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে। 

এব্যাপারে থানার সহকারী উপ পরিদর্শক তপন সরকার জানান, ঘটনার দিন থানায় জিডি করেছে এখন ভুক্তভোগীরা অভিযোগ দিলে তাহা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন :