সখীপুরে রোজিনা ইসলামের মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন

পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের উপর নির্যাতন ও তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাকে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক আখ্যায়িত করে অবিলম্বে তাকে নিঃশর্ত মুক্তি দেওয়া এবং মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে টাঙ্গাইলের সখীপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির গণমাধ্যম কর্মীরা।

সখীপুর রিপোর্টার্স ইউনিটি সাংবাদিকদের ব্যানারে বুধবার (১৯ মে) বেলা ১১টায় ঐতিহ্যবাহি তালতলাচত্বরে"সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি,নির্যাতন কারীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন শীর্ষক ব্যানারে অনুষ্ঠিত ঘন্টাব্যাপী এ কর্মসূচীতে টেলিভিশন,সংবাদপত্র ও অনলাইন নিউজ পোর্টালের সাংবাদিকবৃন্দ অংশ নেন।

এ সময় সখিপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মোহাম্মদ শরীফুল ইসলামের সভাপতিত্বে সাংবাদিক নেতারা বলেন, সাংবাদিকদের স্বার্থ রক্ষা করা তথ্যমন্ত্রীর কাজ।সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্থা, নির্যাতন চালানোর ঘটনায় তার হস্তক্ষেপ প্রয়োজন ছিল সবার আগে। অথচ আমরা লক্ষ্য করছি তথ্যমন্ত্রী এখনও চুপ রয়েছেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দুর্নীতির আখড়া যা সর্বজন স্বীকৃত। দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে মন্ত্রণালয়ের কক্ষে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে নির্যাতন করা হয়েছে। সাংবাদিকের উপর আঘাত না এনে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিন।

অন্যান্যদের মধ্যে এসময় সাংবাদিক মো.মতিউর রহমান ভূইয়া,মিজানুর রহমান,আমিনুল ইসলাম হাবিব,সবুজ খান সহ সখীপুরে কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গণমাধ্যমকর্মীরা আরও বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে যেভাবে নির্যাতন করা হয়েছে সেটি নির্মম ও বর্বর। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব জেবুন্নেচ্ছা খানম গলার টুটি চেপে ধরে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হত্যার চেষ্টা করেছেন। অথচ তার শাস্তি না দিয়ে দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করায় উল্টো সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। রিমান্ড আবেদনও করা হয়েছিল।সাংবাদিক নেতারা এ সময় রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি ও এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান।

মন্তব্য লিখুন :