কালিগঞ্জে লকডাউনের প্রথম দিনে প্রশাসনের কঠোর অবস্থান

সাতক্ষীরায় কালিগঞ্জে ৭ দিনের লকডাউনের প্রথম দিনে কঠোর অবস্থান নিয়েছে প্রশাসন।

করোনা সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাওয়ায় সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে শনিবার (৫ জুন) সকাল থেকে সপ্তাহব্যাপী লকডাউন শুরু হয়েছে।

লকডাউন বাস্তবায়নে ইতোমধ্যে উপজেলা প্রশাসন ও কালিগঞ্জ থানা পুলিশ কঠোর বিধি নিষেধ জারি করেছে। নির্দেশনা অনুযায়ী বন্ধ রয়েছে দোকান-পাট, শপিংমল ও গণপরিবহন।

এছাড়া সাধারণ মানুষকে ঘরে ফেরাতে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পুলিশি চেকপোস্ট বসানোর পাশাপাশি টহল বাড়ানো হয়েছে। চেক পোস্ট বসানো হয়েছে সাতক্ষীরা-মুন্সীগঞ্জ মহাসড়কের কালিগঞ্জের প্রবেশদ্বারেও। নজরদারি বাড়ানো হয়েছে সীমান্ত এলাকায়।

তবে লকডাউন চলাকালে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকানপাট খোলা রাখার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। যদিও এই সুযোগ নিয়ে অন্যান্য সাধারণ দোকানীদেরও দোকানের সামনে অবস্থান নিয়ে এক সার্টার খুলে রাখতে দেখা গেছে। সেই সাথে ইজিবাইক ও ব্যাটারি চালিত ভ্যানও চলাচল করছে।

এছাড়াও লকডাউনের আওতার বাইরে রয়েছে ঔষধের দোকান, হাসপাতাল, ক্লিনিক, অ্যাম্বুলেন্স ও চিকিৎসাসেবা বিষয়ক প্রতিষ্ঠান, বিদ্যুৎ, জ্বালানিসহ জরুরী সেবার জন্য নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান ও যানবাহন।

এই সময়ে সকলকে মাস্ক ব্যবহার করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত জানান, করোনা আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরায় ২৪৫ জন রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ও কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরায় ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৮৯ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে।

মন্তব্য লিখুন :