জয়পুরহাটে গ্রেপ্তার পাঁচ ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি

ট্রেনের টিকিট কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে জয়পুরহাটে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।

বুধবার (৯ জুন) বিকেলে জয়পুরহাট শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। বিভিন্ন আন্তনগর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে রয়েছে তাদের উপরে।

জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার (এসপি) মাছুম আহাম্মদ ভূঞা, বুধবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিরা হলেন জয়পুরহাট পৌর শহরের শান্তিনগর মহল্লার শফিকুল ইসলাম (৪৫), আদর্শপাড়া মহল্লার আবদুল মমিন (৩২), তেঘর মহল্লার রাকিবুল হাসান (২৪), সগুনা মহল্লার শফিকুল ইসলাম (২৬) ও সবুজ নগর মহল্লার মশিউর রহমান (৪২)। গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই জয়পুরহাট স্টেশন রোড ও কেন্দ্রীয় মসজিদ মার্কেটের কম্পিউটার কম্পোজের দোকানি।

ডিবি পুলিশের পরিদর্শক শাহেদ আল মামুন বলেন, গ্রেপ্তারকৃতরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ব্যক্তির জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটতেন। তাছাড়া তাঁরা টিকিট কাউন্টার থেকেও টিকিট কাটতেন এবং সেই গুলো কালোবাজারে তিন থেকে চার গুণ বেশি দামে বিক্রি করে আসছিলেন।

বুধবার বিকেলে জয়পুরহাট শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৪২টি টিকিটসহ তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

জয়পুরহাটের এসপি মাছুম আহাম্মদ ভূঞা জানান, ‘একটি চক্র ট্রেনের টিকিট কালোবাজারে বিক্রি করে আসছিল। পুলিশকে চক্রটি কে ধরার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয় এবং আমরা অভিযান  পরিচালনা করে ৪২টি টিকিটসহ পাঁচজন গ্রেপ্তার করি। জয়পুরহাট জেলায় ট্রেনের টিকিট কালোবাজারির বিরুদ্ধে আমাদের এ রকম অভিযান অব্যাহত থাকবে।

মন্তব্য লিখুন :