হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীর মোবাইল চুরি

করোনায় আক্রান্ত রাজিবুল ইসলাম রাজন নামের এক ব্যক্তি বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন নিচ্ছেলেন।

বুধবার (৯ জুন) রাতে তার ব্যবহৃত দুইটি মুঠোফোন হাসপাতালের বেডের বালিশের নিচে রেখে ঘুমিয়ে পড়েন। বৃহস্পতিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখেন তার মুঠোফোন দুইটি বালিশের নিচে নেই। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ফোন দুইটির খুঁজে পায়নি। রাতের কোনো এক সময় তার দুইটি মোবাইল ফোন চুরি হয়। পরে বগুড়া সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত শহরের সূত্রাপুর এলাকার বাসিন্দা রাজিবুল ইসলাম রাজন ঢাকা নিউজ ৭১ কে বলেন, রাতের কোনো এক সময় তার দুইটি মোবাইল ফোন চুরি করা হয়েছে। এরমধ্যে একটি ফিচার ফোন ও একটি অ্যানড্রয়েড ফোন রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসার জন্য গত ৯ জুন মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাকে মেডিসিন ওয়ার্ডে বি-৩৭ নাম্বার বেডে ভর্তি করে। একই ওয়ার্ডে আমার বাবা-মা ও ভাতিজিও করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডাঃ শফিক আমিন কাজল ঢাকা নিউজ ৭১ কে বলেন, হাসপাতাল থেকে করোনা রোগীর দুইটি মোবাইল ফোন চুরি হয়েছে। বগুড়া সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। ফোন দুইটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে এখনো পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য লিখুন :