উজিরপুরে গরু পিটিয়ে হত্যা

বরিশালের উজিরপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পিটিয়ে গরু হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার (১১) জুন সন্ধ্যায় উপজেলার বড়াকোঠা ইউনিয়নের গড়িয়াগাভা গ্রামের এ ঘটনাটি ঘটে।

ভূক্তভোগী পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বড়াকোঠা ইউনিয়নের গড়িয়াগাভা গ্রামের মৃত আলাউদ্দিন হাওল্দাারের ছেলে সোহেল হাওলাদার (৩৫) এর খামার থেকে শনিবার (১১) জুন সন্ধ্যায় ৩টি গরু দড়ি ছিড়ে একই বাড়ির মৃত জব্বার হাওলাদার (ডিলার) এর ছেলে প্রভাবশালী স্বপন হাওলাদার (৪৫) এর নবনির্মিত বহুতল ভবনের সামনে যাওয়া মাত্র ক্ষিপ্ত হয়ে বাশের লাঠি দিয়ে অমানবিক ভাবে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এতে ঘটনাস্থলেই একটি গরু মারা যায়। বাকী ২টি গরু গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। গুরুতর আহত ২টি গরু চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

এদিকে খামারী সোহেল হাওলাদার হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে। কিন্তু ওই প্রভাবশালীর ভয়ে থানায় অভিযোগ দিতে সাহস পাচ্ছে না।

তিনি আরো বলেন, আমার তিনটি গরু পিটিয়েছে স্বপন হাওলাদার। এরমধ্যে একটি বাছুর তাৎক্ষণিক ভাবে মারা যায়। তবে হত্যাকারী আমার একই বাড়ির চাচাত ভাই হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে অচিরেই মিমাংশা হবে।

অভিযুক্ত স্বপন হাওলাদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি ২টি গরুকে পিটিয়েছি। কিন্তু তখন সেখানে বাছুরটি ছিল না। প্রশ্ন রাখেন এলাকাবাসী এভাবে বোবাজাত পশুকে মানুষ পিটিয়ে হত্যা করতে পারে? এ ঘটনায় এলাকার নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানিয়েছেন, স্বপন হাওলাদার প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিরদ্ধে অভিযোগ দিতে কেউই সাহস পাবে না। হয়ত ইতিমধ্যে গরু খামারীকে টাকা পয়সা দিয়ে ম্যানেজ করে ফেলেছে।

উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়াউল আহসান জানান, বিষয়টি জানা নেই, অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। ওই পশু হত্যাকারী প্রভাবশালীর দ্রুত গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান স্থানীয়রা।


মন্তব্য লিখুন :