বাগেরহাটে একদিনে করোনায় চার জনের মৃত্যু

বাগেরহাটে একদিনে করোনা আক্রন্ত আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ে নতুন করে আক্রন্ত হয়েছেন ৬ জন। এই নিয়ে জেলায় করোনা আক্রন্তের সংখ্যা দাড়ালো ২ হাজার ৪৬ জন। মৃত হয়েছে ৫৩ জনে। এর মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ১ হাজার ৫‘শ ১৪ এবং নিজ বাড়ি ও বিভিন্ন হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১‘শ ৬০ জন।

শনিবার (১২ জুন) দুপুরে বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কেএম হুমায়ুন কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে বর্তমানে জেলার সব থেকে বেশি ঝুকিপূর্ণ উপজেলা মোংলায় কঠোর বিধি নিষেধ জারি থাকলেও মানছে না কেউ। শহরের কাঁচা বাজার, দোকান পাট সবকিছুই আগের মত রয়েছে। ট্রলারে নদী পাড় হচ্ছেন গাদাগাদি করে। এই অবস্থা চলতে থাকলে সংক্রমন কমার কোন সম্ভাবনা নেই এমনই দাবি সচেতন মহলের।

বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কেএম হুমায়ুন কবির বলেন, শুক্রবার জেলা ও উপজেলার হাসপাতালে কোন করোনার পিড এন্টিজেন টেষ্ট না হলেও খুলনা পিসিআর টেষ্টে ২১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েচে। এরমধ্যে মোংলায় ২ জন, মোরেলগঞ্জে, শরণখোলা, ফকিরহাট ও মোল্লাহাট উপজেলায় ১ জন রয়েছে। এই সময়ে মারা গেছে চার জন। এদের মধ্যে মোংলা ২জন এবং বাগেরহাট সদর ও মোরেলগঞ্জে একজন করে রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, করোনা সংক্রমন ঠেকাতে আমরা ঝুকিপূর্ণ উপজেলা মোংলায় কঠোর বিধি নিষেধ জারি করেছি। কঠোর বিধি নিষেধ বাস্তবায়নের জন্য স্বাস্থ্য বিভাগ, উপজেরা প্রশাসন, পুলিশ, কোস্টগার্ড যৌথভাবে কাজ করছে। কঠোর বিধি নিষেধ জারির ফলে সংক্রমন কমবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।


মন্তব্য লিখুন :