রামপালে ভূমিহীনদের জমি ও ঘর উপহার বিতরণ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন

বাগেরহাটের রামপালে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে মোট ৪০ টি আধাপাকা ঘর পাচ্ছেন প্রকৃত ভূমিহীনরা।

আগামী ২০ জুন রবিবার সকাল ১০টায় এ প্রসংঙ্গে প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে একযোগে ঘর বিতরণের শুভ উদ্ধোধনের সূচনা করবেন। এ প্রসংঙ্গে রামপালে ভূমিহীনদের মাঝে বিতরণকৃত ঘরগুলোর মান ও প্রস্তুত সংক্রান্ত বিষয়ক শুক্রবার সকাল ১১ টায় উপজেলা অডিটোরিয়ামে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা প্রশাসন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কবির হোসেন বলেন, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে বাংলাদেশে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনা বাস্তবায়নে রামপালে 'ক’ শ্রেণীর ভূমি ও গৃহহীন ৪০টি পরিবার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর উপহারের এই দৃষ্টিনন্দন ঘর।

এর আগে প্রথম দফায় গৌরম্ভা ইউনিয়নে ভূমিহীনরা পেয়েছেন আরও ১০টি ঘর। আগামীতে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে শতাধিক পরিবারের মাঝেও এমন সেমিপাকা ঘর বিতরণের পরিকল্পা রয়েছে আমাদের। উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির সভাপতি, সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী ও জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে যাচাই-বাছাই করে উপকারভোগীদের নির্বাচন করা হয়েছে। প্রতিটি ঘর নিমার্ণ ব্যয় হয়েছে ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা। বিদ্যুৎ সংযোগসহ আধাপাকা ঘরে রয়েছে ২টি কক্ষ, ১টি রানাঘর, ১টি টয়লেট, ছাউনিতে রঙ্গিন টিন ও ১টি ইউটিলিটিস্পস রয়েছে। প্রতি ১০টি পরিবারের জন্য থাকছে একটি টিউবয়েল। ঘরের বিদ্যুৎ বিলও ফ্রি।

উপকারভোগীদের সমহারে বন্টন করা হবে আশ্রয়ণ প্রকল্পের পুকুর চাষের মাছের অংশ। দেয়া হবে গবাদী পশুও। প্রত্যক উপকারভোগীর জন্য দুই শতাংশ কর জমি ও একটি ঘরের কাগজপত্র তৈরি সম্পন্ন করা হয়েছে।

আগামী ২০ জুন রবিার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঘরগুলার উদ্বোধন করবেন। ওইদিনই সকল উপকারভোগীকে তাদের দলিলাদি সম্বলিত ফোল্ডার হস্তান্তর করা হবে। উপজেলার গৌরম্ভা ইউনিয়নে ১৫টি, বাঁশতলী ইউনিয়নে ১৫টি ও মল্লিকেরবেড় ইউনিয়নে ১০টি পরিবারসহ মাট ৪০ পরিবারের মাঝে এই ঘর হস্তান্তর করা হবে। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, সাংবাদিক জাতীর বিবেক, সমাজের দর্পণ। আমি রামপালের সকল উন্নয়নমূলক কাজ আপনাদের সমন্বয়ে এগিয়ে নিয়ে যেতে  চাই। তাই আপনাদের সহযোগীতা চাই বলেও তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যর মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, রামপাল উপজেলা চেয়ারম্যান সেখ মোয়াজ্জেম হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নূরুল হক লিপন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ মতিউর রহমান, উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ গোলজার হোসেন, রামপাল পল্লী বিদ্যুৎ’র জিএম এমদাদুল ইসলামসহ স্থানীয় ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা।

মন্তব্য লিখুন :