বগুড়ায় সাব্বির হত্যার রহস্য উদঘাটন, আমিনুলসহ গ্রেফতার ২

বগুড়ার শাজাহানপুরে রাস্তার পাশের ডোবা থেকে হাত-পা বাধা অবস্থায় সাব্বির আহম্মেদ (১৪) নামে এক ইজিবাইক চালক হত্যার মুল পরিকল্পনাকারী আমিনুলসহ দুইজনকে গ্রেফতার র‌্যাব-১২ বগুড়া।

নিহত সাব্বির আহম্মেদ বগুড়ার কাহালু উপজেলার জাম গ্রামের ইজিবাইক চালক গোলাম রব্বানীর পুত্র। সে জামগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র ছিল। ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

এ ঘটনার পর থেকেই র‌্যাব-১২, বগুড়া ক্যাম্পের গোয়েন্দা দল ও আভিযানিক দল হত্যার রহস্য উদঘাটনের জন্য মাঠে নামে এবং হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান পরিচালনা করে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি টিম জানতে পারে ইজিবাইক চালক স্কুল ছাত্র সাব্বির হত্যায় জড়িত পলাতক সন্ত্রাসী গাবতলীতে অবস্থান করছে এই সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার দিবাগত রাত ১টা হইতে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামী ও তার সহযোগীকে কাহালু এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, বগুড়ার কাহালু উপজেলার দক্ষিণ জামগ্রাম (সাদাপাড়া) গ্রামের মোঃ গোলাম মোস্তফা পুত্র মোঃ আমিনুল ইসলাম (২৬), দক্ষিণ জামগ্রাম (পাঠপাড়া) গ্রামের মোঃ বুলু মিয়া প্রামানিকের পুত্র মোঃ আব্দুস সোবহান আলী (২৫)।

গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার বগুড়ার শাজাহানপুর এলাকায় ইজিবাইক ছিনতাই করার সময় বাধা দিলে সাব্বির কে হত্যা করা হয়। উক্ত হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতারকৃত আমিনুল ও সোবহান ইজিবাইক ছিনতাই করার সময় খুনি হিসেবে হত্যাকাণ্ডে অংশগ্রহণ করেছিল।

গ্রেফতারকৃতরা সাব্বির হত্যার পর থেকেই বগুড়ার বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপন করেছিল।

উল্লেখ্য, এ হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতারকৃত অপর আসামী আঃ সালাম আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীতে মূল পরিকল্পনাকারী আমিনুল ও সহযোগী সোবহান হত্যাকাণ্ডে জড়িত বলে উল্লেখ করেছে। গ্রেফতারকৃত উঠতি বয়সী যুবকদের সন্ত্রাসী কার্যক্রমসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করার সহযোগিতা করে আসছে।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বগুড়ার শাজাহানপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

র‌্যাব-১২ বগুড়া কোম্পানি কমান্ডার লে: কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন (জি) বিএন ঢাকা নিউজ৭১-কে বলেন, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বগুড়ার শাজাহানপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :