সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে সৎ বাবা আটক

কালিগঞ্জে ১৫ বছর বয়সী সৎ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

সোমবার (২৮জুন) বেলা ১১ টার দিকে উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের রায়পুর বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আটককৃতের নাম  আব্দুল আলিম (৩৬)।

অভিযুক্ত আব্দুল আলিম উপজেলার হাসানকাটি (রায়পুর) গ্রামের খোরশেদ আলীর ছেলে। সেদিন দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ভুক্তভোগী ওই কিশোরী জানায়, প্রায় ১ বছর পূর্বে আমার মা বাবার সাথে ঝগড়া-বিবাদ করে আমার বাবাকে তালাক প্রদান করে। তালাকের প্রায় ৬ মাস পরে আসামি আব্দুল আলিম আমার মাকে বিবাহ করেন।

বিবাহের পরে আসামি আমার সৎ বাবা আমার দিকে কু-দৃষ্টিতে তাকাতো, যখন তখন গায়ে হাত দিত, বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে আমাকে বিভিন্ন জায়গায় বেড়াতে নিয়ে যেত, সেই সুবাদে গত (৩০ মে) বিকাল ৪ টার দিকে জামাকাপড় কিনে দেওয়ার নাম করে মোটরসাইকেল যোগে আমাকে উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের নেংগী গ্রামের জনৈক হাফিজুল ইসলাম এর বসতবাড়িতে নিয়ে আমাকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে হাফিজুল ইসলাম এর বসত ঘরের মধ্যে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে আসামি জোরপূর্বক আমাকে ধর্ষণ করে। এরপর আসামি আমাকে ভয় ভীতি দেখিয়ে বলে, যদি আমি ঘটনার বিষয়ে কারো নিকট কিছু বলি তাহলে আমাকে খুন করে ফেলবে।

এ বিষয়ে কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা জানান, ওই কিশোরী বাদী হয়ে তার সৎ বাবার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। ওই কিশোরীর সৎ বাবা আব্দুল আলিমকে গ্রেফতার করে আদালতে মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :