বোয়ালমারীতে লকডাউনের ২য় দিনে ১১ জনকে জরিমানা

ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে এক সপ্তাহের কঠোর বা সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিন থেকেই কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন।

প্রথম দিনের মতো শুক্রবার (২জুলাই) ২য় দিনেও উপজেলার কোন দোকানপাট খোলেনি, চলেনি কোন গণপরিবহন। সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিনেও উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের দুটি টিম উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সক্রিয় ছিল।

কঠোর লকডাউনের ২য় দিনে লকডাউনের বিধি-নিষেধ অমান্য করায় ১১ জন পথচারী, ব্যবসায়ী এবং মোটরসাইকেল চালককে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৭ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এর আগে প্রথম দিন বৃহস্পতিবার লকডাউনের বিধি-নিষেধ অমান্য করায় উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ৩৭ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হয়। এ কারণে জরিমানার ভয়ে লকডাউনের দ্বিতীয় দিন জরুরি প্রয়োজন ছাড়া তেমন কেউ বাইরে বের হয়নি।

কঠোর লকডাউনের প্রথমদিন থেকেই উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে নিরাপত্তা চৌকি বসিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবারের মতো শুক্রবারও জরুরি সেবা, ঔষধের দোকান ও কাঁচা বাজার ছাড়া সবধরনের দোকানপাট, মার্কেট ও শপিংমল বন্ধ ছিল। মাঝকান্দি-ভাটিয়াপাড়া আঞ্চলিক মহাসড়কসহ বোয়ালমারীর বিভিন্ন সড়কে টহল দিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য লিখুন :