চিকিৎসকের খুটির জোড় কোথায়!

সাধারন জনগণের অভিযোগ এই করোনাক্রান্তির সময়ে তাকে ছুটি দিল কে?

ফরিদপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ এর অধ্যক্ষ ডা:মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জুর খুটির জোড় কোথায়। সাধারন জনগণের অভিযোগ এই করোনাক্রান্তির সময়ে তাকে ছুটি দিল কে?

দীর্ঘ প্রায় ১ বছরের বেশি সময় ধরে মহামারী করোনায় দিশেহারা সাধারন জনগনকে নিরাপদে রাখতে সরকার এবং স্বাস্থ্য বিভাগের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারীকে ছুটি বাতিল করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ কিন্তু তার মধ্যে কি করে ছুটি নিয়ে কিভাবে ডা: মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু ৩০ শে জুন ২০২১ ইং তারিখে কানাডায় বেড়াতে যায়, একে ছুটি দিল কে? এই নিয়ে ফরিদপুর শহরে চলছে ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনা এবং তার দুর্নীতির অনেক অভিযোগ।

ডা: মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে কর্মরত। প্রতিদিন শত শত করোনা শনাক্ত রোগীরা টেস্ট করানোর জন্য আসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজে তার কারন করোনা শনাক্ত পিসিআর ল্যাবটি ঐ কলেজেই স্তাপন করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

অধ্যক্ষ ডা:মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জুর বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের ফরিদপুর জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ডাঃ ওহিদুর রহমান বলেন, ডাঃ রন্জু হাল আমলের এক বিশাল আওয়ামীলীগ নেতা। আওয়ামীলীগ সরকারের ২য় মেয়াদে রাজবাড়ীতে জন্ম নেওয়া জামাত নেতার গুনধর পুত্র বিশিষ্ট চিকিৎসক নেতার পক্ষে এডহকের মাধ্যমে ৬ হাজার চিকিৎসক নিয়োগের দায়িত্ব পেয়েছিলেন। সেই দায়িত্ব সুচারুভাবে পালনের মাধ্যমে বিএনপি, জামাত ঘরানার সহস্রাধিক চিকিৎসককে অর্থের বিনিময়ে নিয়োগ প্রদান করেন।

সেই নিয়োগ প্রক্রিয়া থেকে বিশাল অংকের অবৈধ অর্থ তিনি এবং তার ওস্তাদ অর্জন করেন। সেই অর্থ দিয়েই তিনি কানাডার বেগম পাড়ায় বাড়ি করেন বলে জনশ্রুতি আছে।

ডাঃ ওহিদুর রহমান বলেন, এই মুহুর্তে সারা পৃথিবী যখন করোনার ছোবলে বিপর্যস্ত। স্বাস্থ্য বিভাগের যখন ছুটি বাতিল করা হয়েছে। ঠিক সেই মুহূর্তে তিনি কানাডায় অবস্থান করছেন, এটা সত্যিই চরম দুঃখজনক। যেহেতু তিনি সরকারী চাকুরিতে কর্মরত, ছুটি ছাড়া তিনি ইমিগ্রেশন পার হতে পারার কথা নয়। কারা তাকে ছুটি দিল, কেনই বা দিলো, তার সকল বিষয়ে বিচার বিভাগীয় এবং দুদকের মাধ্যমে তদন্ত হওয়ার জোর দাবী জানাচ্ছি।

আইনজীবী মো শাহজাহান বলেন, ফরিদপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ এর অধ্যক্ষ ডা: মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু এই মুহূর্তে একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থাকা অবস্থায় তার বিদেশ যাওয়া মোটেই ঠিক হয় নি। তিনি আর বলেন, কোন মৃত ব্যক্তির পোস্টমর্টেম করাতে হলে এই কলেজেই আসতে হয় এবং পোস্টমর্টেম রিপোর্টের প্রধান এই অধ্যক্ষ। গুরুত্বপূর্ণ পোস্টমর্টেম এর বিষয়ে প্রতিবেদন দিবে কে।

অধ্যক্ষ ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমানের বিষয়ে ফরিদপুর বিএম এর সাধারন সম্পাদক ডাঃ মাহফুজুর রহমান বুলু বলেন, এই মহামারীর সময়ে স্বাস্থ্য বিভাগের সকলের ছুটি বাতিল কিন্তু কিভাবে মন্ত্রণালয় তাকে বিদেশ যাবার অনুমতি দিলেন তা আমার বোধগম্য নয়। এই মুহূর্তে তার কানাডায় যাওয়া ঠিক হয়নি বলে আমি মনে করি।

ফরিদপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ এর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডাঃ দিলরুবা জেবা জানান, অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু নিয়ম নীতি মেনেই কানাডায় গিয়েছেন এবং তাকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক মাসের ছুটি দিয়েছেন সেই ছুটি ৩০ শে জুন ২০২১ ইং তারিখ থেকে কার্যকর করা হয়েছে।

নাম প্রকাশ করার শর্তে একাধিক আঃ লীগ নেতারা জানান, সাবেক এক সংসদ সদস্যসহ নব্য ত্রিরত্ন নেতাদের শেল্টারে অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান রঞ্জু যা খুশি তাই করছেন।

মন্তব্য লিখুন :