সখীপুরে চলছে খোলা বাজারে চাল-আটা বিক্রি

টাঙ্গাইলের সখীপুরে সর্বসাধারণের জন্য ওএমএসের চাল-আটা বিক্রি চলছে। যে কোন ব্যক্তি ওএমএসের চাল ও আটা কিনতে পারবেন। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসে সখীপুর পৌরসভার  ক্ষতিগ্রস্ত নিম্নআয়ের মানুষের মাঝে খোলা বাজারে ওএমএসের চাল-আটা বিক্রি ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।

২৫শে জুলাই রবিবার থেকে এ চাল-আটা বিক্রি করা হচ্ছে। প্রতি কেজি চাল ৩০ টাকা ও আটা ১৮ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ১জন ব্যক্তি ৫ কেজি আটা ও ৫ কেজি চাল ২৪০ টাকায় নিতে পারবেন। শুধু শুক্রবার বাদে সপ্তাহে ৬ দিন সকাল ১০ থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত চাল-আটা বিক্রয় করা হবে। জানা যায় আগামী ৭ আগস্ট পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে।

উপজেলা খাদ্য অধিদপ্তর সূত্র জানা যায়, সখীপুর পৌরসভার গার্লস স্কুল সংলগ্ন উত্তরা মোড়, মুজিব কলেজ রোড, জেলখানা মোড়, হাসপাতালের দক্ষিণ পাশে পিছের মাথায় খাদ্য অধিদপ্তর থেকে নির্ধারিত চারজন ডিলারের মাধ্যমে খোলা বাজারে চাল ও আটা বিক্রি শুরু করা হয়েছে।

সখীপুর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা মোঃ আশরাফুল আলম ফাহিম জানান, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ নির্দেশনায় করোনায় নিম্নআয়ের জনসাধারণের খাদ্য প্রাপ্তি সহজলভ্য করার জন্য খাদ্য অধিদপ্তরের চাল বিক্রি শুরু করা হয়েছে। প্রতিদিন চারজন ডিলার প্রতিজন দেড় টন  চাল ও  ১ টন আটা বিক্রি করতে পারবে। একজন ব্যক্তি সর্বোচ্চ ৫ কেজি চাল,৫কেজি আটা কিনতে পারবেন এবং প্রতি কেজি চাল ৩০ টাকা ও আটা ১৮ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।


মন্তব্য লিখুন :