ঘরে ঢুকে মুখ চেপে তরুণীকে ধর্ষণ, থানায় মামলা

ঢাকার ধামরাইয়ে রাতের বেলা চুপিসারে ঘরে ঢুকে মুখ চেপে ধরে তরুণীকে (২৪) ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

এ ঘটনায় রোববার (৮ আগস্ট) রাতে ধামরাই থানায় অভিযুক্ত ধর্ষকসহ ৪ জনের নামে এই মামলা (নং-১৭) দায়ের করা হয়।

এর আগে গত ৬ আগস্ট উপজেলার গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের কাওয়ালী পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ধর্ষকের নাম মো: সুমন হোসেন। সে ধামরাইয়ের গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের কাওয়ালী পাড়া গ্রামের মো: আলতাফ হোসেনের ছেলে। অভিযোগের অন্য আসামীরা সুমনের সহোদর ভাই শামীম হোসেন, সেলিম হোসেন ও আমজাদ হোসেন মরণ।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত কয়েক বছর ধরেই অভিযুক্ত যুবক ওই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে গত ৬ আগস্ট রাতে অভিযুক্ত সুমন ওই তরুণীর ঘরে ঢুকে তাকে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে। এসময় চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে তরুণীকে উদ্ধার করে যুবককে আটক করে। আটকের খবর পেয়ে অভিযুক্ত বাকীরা এসে তরুণীর পরিবারের লোকজনকে হুমকি-ধমকি দিয়ে ওই যুবককে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আরাফাত উদ্দিন বলেন, তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। আসামীদের ধরতে অভিযান চালানো  হচ্ছে। এছাড়া স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ভুক্তভোগী তরুণীকে ঢামেকে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :