কমতে শুরু করেছে পদ্মার পানি

ফরিদপুরে বন্যা পরিস্থিতি গত ২৪ ঘণ্টায় পদ্মা নদীর পানি ফরিদপুর পয়েন্টে ৪ সেন্টিমিটার কমে এখন তা বিপদসীমার ৪৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি বৃদ্ধির ফলে ফরিদপুরের সদর উপজেলার ডিক্রিরচর, নর্থচ্যানেল, চরমাধবদিয়া ও আলিয়াবাদ ইউনিয়নের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

এছাড়া ফরিদপুরের সদরপুর ও চরভদ্রাসন উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে পানি ঢুকে যাওয়ায় সেখানকার প্রায় ৫০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। গত কিছুদিন বন্যার পানি আশঙ্কাজনক হারে বাড়তে থাকায় পদ্মার তীরবর্তী নিম্নাঞ্চলের হাজারো মানুষের মাঝে নেমে এসেছে চরম দুর্ভোগ। পানিতে বসত বাড়ি তলিয়ে যাওয়ায় অনেকেই ইতোমধ্যে উচু রাস্তা ও স্কুলে আশ্রয় নিয়েছে। বন্যার কারণে ফরিদপুরের বিস্তীর্ণ এলাকার ফসলি জমি তলিয়ে যাওয়ায় ধান ও সবজি ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

পানি বৃদ্ধির কারণে ঘরবাড়ি তলিয়ে যাওয়ায় অনেকেই রয়েছেন নানা কষ্টের মধ্যে। এর মধ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ফরিদপুর সদর উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে এক হাজার পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করেছে।

অপরদিকে আলফাডাঙ্গা উপজেলার গোপালপুরে মধুমতি নদীর ব্যাপক ভাঙনে অনেক বসতবাড়ি ও ঘর নদীতে বিলীন হয়ে গেছে।

ফরিদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সুলতান মাহামুদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় পদ্মা নদীর পানি ফরিদপুর পয়েন্টে ৪ সেন্টিমিটার কমে এখন তা বিপৎসীমার ৪৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন :