সখিপুরে জমিয়াতুল মােদার্রেছীনের গঠনতন্ত্র বিরোধী কমিটি বাতিলের দাবি

টাঙ্গাইলের সখিপুরে মাদ্রাসা শিক্ষকদের সংগঠন "বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন" সখিপুর উপজেলা শাখার ব্যানারে গঠনতন্ত্র বিরোধী কমিটির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জমিয়াতুল মােদার্রেছীন সখিপুর উপজেলা শাখা।

রবিবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকাল এগারোটায় সখিপুর থানা সদর দাখিল মাদরাসায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জমিয়াতুল মােদার্রেছীন সখিপুর উপজেলা শাখার গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বৈধ সভাপতি দাবী করে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সখিপুর থানা সদর দাখিল মাদরাসার সুপার মো: সাইফুল ইসলাম।

সংবাদ সম্মেলনে, জামিয়াতুল মােদার্রেছীন সখিপুর উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও কাহারতা দাখিল মাদরাসার সহ: শিক্ষক মো: মোশারফ হোসেন, কামালিয়া চালা সিনিয়র মাদরাসার অধ্যক্ষ মো. ফজলুল হক, বেড়বাড়ী দাখিল মাদরাসার সুপার মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, চাকদহ ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মো.হোসেন আলী, চদলবাইদ দাখিল মাদরাসার সুপার মো. আ. জব্বার, মামুদনগর দাখিল মাদরাসার সুপার শহিদুল ইসলাম, শাপলাপাড়া দাখিল মাদরাসার সুপার মো. সিরাজুল ইসলাম, নামদারপুর ফাযিল মাদরাসার সহ মৌলভী মো. আবদুস ছবুর, কচুয়া ওয়াহেদিয়া দাখিল মাদরাসার সহ. শিক্ষক মো. আমির হোসেন, মামুদনগর দাখিল মাদরাসার সহসুপার মো. আব্বাস আলী, সখীপুর থানা সদর দাখিল মাদরাসার সহসুপার মো. শামছুল হক, সহ: শিক্ষক মো. হুমায়ুন কবির, মো. শরিফুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, অতীব দুঃখের সাথে জানাচ্ছি গত ২৯/০৮/২০২১ খ্রি. তারিখে বাংলাদেশ জমিয়াতুল মােদার্রেছীন সখিপুর উপজেলা শাখা নামে একটি কমিটি প্রকাশ পেয়েছে।

যা গঠনতন্ত্ৰ বিরোধী এবং অবৈধ। কতিপয় সুবিধা ভােগী, স্বার্থ বাদী এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী ব্যক্তি তাদের স্বার্থ হাসিলের জন্য এবং জমিয়াতের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য পায়তারা করতেছে।

আমি মােঃ সাইফুল ইসলাম সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মােঃ মােশারফ হােসেন যৌথ ভাবে তাদের এহেন কার্যকলাপের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করতেছি। গঠনতন্ত্রের ধারা ৪(খ) অনুযায়ী কেন্দ্র ও সকল শাখার মেয়াদ হবে ৫ (পাঁচ) বছর। আমাদের সখিপুর উপজেলা শাখা জমিয়াতকে জেলা জমিয়াত অনুমােদন দেন ২৫/৫/২০১৯ খ্রি. উল্লেখ্য থাকে যে ০১/০৯/২০২১ খ্রি. তারিখে প্রায় সকল প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও কার্য নির্বাহী পরিষদের সদস্যদের নিয়ে জমিয়াতের কার্যক্রম বেগবান রাখার জন্য একটি মিটিং করা হয় এবং উক্ত বিষয়ের প্রতি সকলের সমর্থনে তীব্র নিন্দা জ্ঞাপনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

মাদ্রাসা শিক্ষক নেতারা এসময় আরো বলেন, আমাদের অনুমোদন দেওয়া কমিটি বাতিল না করে বা আমাদের কোনো নোটিশ না দিয়েই জেলা কমিটি নতুন কমিটি অনুমোদন দিয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে একাধিক শিক্ষক নতুন এ কমিটিতে তাদের অবগত না করেই বিভিন্ন পদে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। সাংগঠনিক সমস্যা থাকলে বা কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন কমিটি দেওয়ার প্রয়োজন হলে অবশ্যই তা গঠনতন্ত্র অনুযায়ী হতে হবে। সাংগঠনিক স্বার্থে এবং জমিয়তের ভাবমূর্তি অক্ষুন্ন রাখতে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী আমরা যেকোনো সিদ্ধান্ত মেনে নিবো।

সংবাদ সম্মেলনে সখিপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির সহ সভাপতি আমিনুল ইসলাম হাবিব, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল, যুগ্ম সম্পাদক শরিফুল ইসলাম বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, সদস্য মোঃ আব্দুল লতিফ, মির্জা সাইদুল ইসলাম সাঈদ, মোঃ আলমগীর হোসেনসহ অন্যান্য গণমাধ্যমকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন :