অনৈতিক কর্মকাণ্ডের সংবাদ প্রকাশ করায়, সংবাদকর্মীকে হুমকি!

গত ৩ অক্টোবর রবিবার ঢাকা নিউজ ৭১ সহ কয়েকটি অনলাইন পোর্টালে ”টাঙ্গাইল সাবালিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানে কেয়ার টেকারের কক্ষে অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়।

মূহুর্তেই সংবাদটি এলাকাবাসীর দৃষ্টিগোচর হওয়ায় ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান তথা দুষ্ট চক্রটির বিরুদ্ধে এলাকায় নিন্দার ঝড় ওঠে। প্রকাশ থাকে যে, এলাকাবাসী তথা ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা সংবাদ কর্মী ও সদর পুলিশ ফাড়ির পুলিশ প্রশাসন কে মুঠোফোনে খবর দিলে সংবাদ কর্মী রাকিব আল হাসান শরৎ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। ছেলে মেয়ে দুইজনকে একত্রে কেয়ার টেকারের কক্ষে সংবাদ কর্মী দেখতে পায়। ঘটনার সত্যতা তারা নিজেরাই স্বীকার করে এবং আত্নসম্মান রক্ষার্থে নানা আকুতি মিনুতি করে সকলের সামনে। ঘটনা স্থল থেকে সংবাদ কর্মী চলে এসে সংবাদ করার প্রস্তুতি নিলে সংবাদ কর্মীকে প্রথমে সংবাদটি না করার অনুরোধ জানায় ঐ চক্র।

যে চক্রটি প্রায়ই ঐ সাবালিয়া এলাকায় সকল অনৈতিক কর্মকাণ্ডের চিহ্নিত মদত দাতা হিসেবে পরিচিত। যাদের মধ্যস্থতায় ঐ কেয়ারটেকারের কক্ষে অনৈতিক সংঘটিত কর্মকাণ্ড দুই জুগলকে ছাড়িয়ে দেওয়ানো হয়। তারাই অতি উৎসাহিত হয়ে নিজেদের অপকর্ম কে ধামাচাপা দিতে নানা হুমকি ধামকি ভয়ভীতি অব্যাহত রেখেছেন। উঠে পরে লেগেছেন ঐ সংবাদ কর্মীকে একটা কিছু দিয়ে ফাসাতে। সংবাদ কর্মীর বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে ক্ষিপ্ত হয়ে ঐ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান তথা চিহ্নিত চক্রটি তাদের অপকর্ম ঢাকতে ক্ষমতায় অপব্যবহার পূর্বক নানা অপতৎপরতায় লিপ্ত রয়েছে। সংবাদ কর্মীকে মিথ্যা অভিযোগে ফাসাতে নানা দৌড়ঝাঁপ করেই চলেছে।

সংবাদ কর্মী নিজ এলাকা ও মহল্লার স্বার্থেই দ্বায়িত্ব পালন করেছেন মাত্র। এ প্রেক্ষিতে একটি চক্র সংবাদ কর্মী ও তার পরিবারকে নানামুখী ক্ষতি করার হুমকি দিচ্ছে অনবরত বিধায় ভবিষ্যৎ নিরাপত্তার স্বার্থে সংবাদ কর্মী রাকিব আল হাসান শরৎ টাঙ্গাইল সদর থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করেছেন।

মন্তব্য লিখুন :


আরও পড়ুন