বাবার সঙ্গে অভিমানে মেয়ের আত্মহত্যা

প্রেম করে নিজের ইচ্ছায় বিয়ে করেছিলেন মেয়ে। এক বছরেও সেই সম্পর্ক মেনে নেয়নি বাবা। আর এতেই বাবার সঙ্গে অভিমান করে আত্মঘাতী হয়েছেন এক তরুণী (১৮)।

রোববার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে ঢাকার ধামরাইয়ের কুমড়াইল এলাকা থেকে ওই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

আত্মঘাতী তরুণীর নাম ফারজানা আক্তার মীম। সে গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরের রসুলপুর ইউনিয়নের চক নারায়নপুর গ্রামের রমজান আলীর স্ত্রী। ওই একই গ্রামের মেয়ে তিনি। তারা ধামরাই পৌরসভার কুমড়াইল এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকতো।

পুলিশ জানায়, এক বছর আগে ভালোবেসে প্রেমিককে বিয়ে করে ধামরাইয়ে পালিয়ে এসেছিলেন ওই তরুণী। এরপর থেকে মায়ের সঙ্গে কথা হলেও বাবা তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। আজ সকালে স্বামী কর্মক্ষেত্রে চলে যাওয়ার পর মায়ের সঙ্গে কথা হয় ওই গৃহবধূর। এরপর থেকেই দরজা বন্ধ করে দেয় সে। বিকেলের দিকে অনেক ডাকাডাকি করেও সাড়া না পাওয়ায় স্বামীকে খবর দিয়ে আনার পর দরজা খুলে তরুণী মরদেহ দেখতে পায় সবাই। পরে ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুস সালাম বলেন, খবর পেয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। পরিবারের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন :