সখিপুরে বন এলাকায় স্থাপিত অবৈধ ১৯ করাতকল উচ্ছেদ

টাঙ্গাইলের সখিপুর বহেড়াতৈল রেঞ্জের সংরক্ষিত বন এলাকায় স্থাপিত ১৯টি অবৈধ করাতকল উচ্ছেদ করেছে বনবিভাগ।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) সারাদিন বহেড়াতৈল রেঞ্জের আওতাধীন বিভিন্ন বিট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওইসব অবৈধ করাতকল উচ্ছেদ করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার আনাচে কানাচে সংরক্ষিত বন এলাকায় অসংখ্য লাইসেন্সবিহীন করাতকল গড়ে উঠেছে। সংরক্ষিত বন এলাকায় প্রভাবশালীরা প্রায় দেড় শতাধিক অবৈধ করাতকল স্থাপন করে বনের গাছ নিধন করে আসছে। একদিকে উচ্ছেদ অভিযান চলাকালীন সময়ে অন্যদিকের অবৈধ করাতকল বন্ধ করে যন্ত্রাংশ সরিয়ে ফেলে সটকে পড়ে করাতকল মালিকরা।

বহেড়াতৈল রেঞ্জ কর্মকর্তা এএইচএম এরশাদ জানান, টাঙ্গাইল বন বিভাগের সহকারি বন সংরক্ষক কর্মকর্তা জামাল হোসেন তালুকদারের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম বুধবার দিনভর বহেড়াতৈল রেঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় বড়চওনা, ছাতিয়া বাজার, আইলসারবাইদ, তৈলধারা, গড়বাড়ি, দিঘীর চালা, সাপিয়া চালা, বাঘেরবাড়ি, হামিদপুর, মহানন্দপুর, জিনের বাজার, আবাদী বাজার, আকন্দপাড়া বাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৯টি অবৈধ করাতকল উচ্ছেদ করা হয়। বহেড়াতৈল রেঞ্জের কচুয়া, ডিবিগজারিয়া (কৈয়ামধু), এমএমচালা (আন্দি), কাকড়াজান (মরিচা), সদর বিটের সকল কর্মকর্তা/কর্মচারী বিশেষ টিমকে সর্বিক সহায়তা করেন।

টাঙ্গাইল বনবিভাগের সহকারি বন সংরক্ষক কর্মকর্তা মো. জামাল হোসেন তালুকদার জানান, সংরক্ষিত বন এলাকায় অবৈধভাবে স্থাপিত করাতকল উচ্ছেদ অভিযান চলমান থাকবে।

মন্তব্য লিখুন :