বিএনপি কার্যালয়ে ছাত্রলীগের হামলা

পটুয়াখালীতে বিএনপি কার্যালয়ে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা ব্যপক ভাঙচুর চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে পটুয়াখালী পৌর শহরের বনানী এলাকার জেলা বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার জন্য আন্দোলনে ব্যাঘাত ঘটাতে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা।

পটুয়াখালী জেলা ছাত্রদের সভাপতি সফিউল বাসার উজ্জ্বল বলেন, বেলা এগারোটার দিকে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার জন্য কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ছাত্রদলের শতাধিক নেতাকর্মীদের নিয়ে দলীয় কার্যালয়ের সম্মুখ্যে শান্তিপূর্ণ ভাবে বিক্ষোভ কর্মসূচি শুরু করেছি।

এসময় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ধাওয়া দিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এসময় পুলিশ আসলে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা চলে যায়। কিছুক্ষণ পরে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে পুনরায় এসে তালাবদ্ধ বিএনপি অফিসের তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে ভাংচুর চালায়।

পটুয়াখালী জেলা যুবদলের সভাপতি মনিরুল ইসলাম লিটন বলেন, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা-কর্মীরা হামলা চালিয়ে আমাদের অফিসে ব্যপক ভাঙচুর করেছে। এর আগেও কয়েকবার আমাদের অফিসে হামলা করছে আগুন দিয়েছে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা কর্মীরা।

পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আশিষ কুমার হৃদয় বলেন, অনেকদিন ধরে ছাত্রলীগের কমিটি নেই। বিএনপির নিজেদের মধ্যে যে দ্বন্দ্ব-ক্রন্দন রয়েছে তার দায়ভার ছাত্রলীগের ঘাড়ে চাপাতে চাইছে তারা। বিএনপির মধ্যে দুইটি গ্রুপ রয়েছে এরা নিজেরা অফিস ভাঙচুর করে ছাত্রলীগকে দোষারোপ করছেন।

পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাইনি। শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :