ধর্ষণে সহযোগীতার অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

ঢাকার ধামরাইয়ে ধর্ষককে সহযোগিতার অভিযোগে ফাহিম হোসেন (২০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত ওই যুবককে মঙ্গলবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে সোমবার রাতে মামলা (মামলা নং-৭) দায়েরের পর রাতেই ওই সহযোগীকে গ্রেফতার করা হয়। গত ১১ নভেম্বর উপজেলার গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের অর্জুন নালাই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতারকৃত ফাহিম হোসেন মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার ধুল্লা গ্রামের মো: আজিজুল হকের ছেলে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী কিশোরীর পরিবারের সূত্র জানায়, গত ১১ নভেম্বর ওই কিশোরীর বাড়ির সবাই ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে যায়। এ সময় একা পেয়ে ওই কিশোরীকে সদলবলে অপহরণ করে একটি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ৭ দিন আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এতে তার জরায়ু ক্ষতবিক্ষত হয়ে জখম হয়। পরে তার গোঙ্গানির শব্দ শুনে স্থানীয়রা কিশোরীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে আটক করে। তবে তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। পরে এ ঘটনায় কিশোরীর পরিবারের সঙ্গে মিটমাটের চেষ্টা চালিয়ে আটককৃতকে ছেড়ে দেয়া হয়।

তবে ঘটনার ১৮দিন পর সোমবার (৭ ডিসেম্বর) রাতে থানায় মামলা দায়ের করা হয়। পরে রাতেই এক আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

জানতে চাইলে ধামরাইয়ের গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের মোল্লা বলেন, ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করার জন্য মুচলেকা রেখে আটককৃতকে ছেড়ে দেয়া হয়েছিল। তবে মীমাংসা না হওয়ায় মামলা হয়েছে।

এ বিষয়ে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আরাফাত উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় মামলার প্রেক্ষিতে ধর্ষকের সহযোগীকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য লিখুন :