দ্রুত স্কুল খুলে দেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

করোনার সংক্রমণ শুরুর পর গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। দফায় দফায় বাড়ানো এই সাধারণ ছুটি আগামী ৩১ আগস্ট শেষ হওয়ার কথা। এরইমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে স্কুলও দ্রুত খুলে দেয়ার ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ বুধবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের পরিকল্পনা বিভাগের এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে এক ভার্চ্যুয়াল সচিব সভায় এ নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। সভায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সচিব জানান, বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি স্কুলগুলোও দ্রুত খুলে দেয়ার ব্যবস্থা করতে বলেন প্রধানমন্ত্রী।

বাচ্চারা ঘরে থাকতে থাকতে অসুস্থ হয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, মানসিকভাবেও অসুস্থ হয়ে পড়ছে তারা। সেজন্য জরুরি ভিত্তিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দিতে হবে। এ ব্যাপারে সব ধরনের পদক্ষেপ নিতে হবে। এ সময় শিক্ষার্থীদের সবার টিকা নিশ্চিত করার কথাও বলেন শেখ হাসিনা।

এর আগে গত রোববার এক অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছিলেন, সংক্রমণ ‘যথেষ্ট কমলে’ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে। বিষয়টি নির্ভর করছে সংক্রমণ কমা এবং শিক্ষার্থীদের টিকাদানের ওপর।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে সবার আগে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেয়া হবে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, এরপর ধাপে ধাপে অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও খুলে দেয়া হবে। তবে কবে নাগাদ সেটি করা সম্ভব হবে, তা এখনই বলার সুযোগ নেই।

এদিন সচিব সভায় আরো যেসব বিষয়ে আলোচনা হয়, তার মধ্যে রয়েছে- স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) চ্যালেঞ্জ, ডেল্টা প্ল্যান, করোনা পরিস্থিতি, প্রণোদনা প্যাকেজ, টিকাদান কর্মসূচি, খাদ্য নিয়ে গবেষণা, কৃষি ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়, কৃষি যান্ত্রিকীকরণ ইত্যাদি।

মন্তব্য লিখুন :