ইরানের সঙ্গে শর্তহীন আলোচনায় বসতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

ইরানের সঙ্গে শর্তহীন আলোচনায় বসতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। রোববার রাতে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর শুরু করার আগে বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সাথে এ কিথা বলেন তিনি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদে বিমান হামলা চালিয়ে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ডের (আইআরজিসি) কুদস বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করা হয়। এই হামলার ‘মারাত্মক প্রতিশোধ’ হিসেবে বুধবার (৮ জানুয়ারি) সকালে ইরাকের মার্কিন বিমানঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় তেহরান। এরপর জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে পরমাণু অস্ত্র পরিত্যাগে শর্তে শান্তি আলোচনার প্রস্তাব দেন ট্রাম্প। পরে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদেকে চিঠি দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত কেলি ক্রাফট বলেন, ‘চলমান পরিস্থিতিতে কোনও ধরনের শর্ত ছাড়াই ইরানের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ এবং আন্তরিক আলোচনায় বসতে প্রস্তুত রয়েছে ওয়াশিংটন। ইরান সরকার যাতে বিশ্ব শান্তি এবং নিরাপত্তা বিনষ্ট করতে না পারে তার জন্য আমরা আলোচনায় বসতে চাই।’ নিঃশর্ত আলোচনায় বসার কথা বললেও মার্কিন রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, ‘মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সেনা এবং আমেরিকার স্বার্থ রক্ষা করার জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থাই নেওয়া হবে।’

এর আগেও মার্কিন সরকার ইরানের সঙ্গে এরকম নিঃশর্ত আলোচনায় বসার প্রস্তাব দিলেও তাতে অনাস্থা জানিয়েছে ইরান। তাদের দাবি, তেহরানের ওপর থেকে মার্কিন অবৈধ নিষেধাজ্ঞা সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাহার করে না নিলে আমেরিকা সঙ্গে কোনও আলোচনা হবে না।

মন্তব্য লিখুন :


আরও পড়ুন