ঘুমন্ত ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা: ১৩ শিশু নিহত

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বিমান হামলায় ১৩ শিশুসহ আরও ৩৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।

রবিবার (১৬ মে) ভোরের ঠিক আগে গাজা শহরের কেন্দ্রে ঘুমন্ত ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা করে ইসরায়েল। এ নিয়ে টানা সপ্তম দিন ইসরায়েলের হামলায় গাজা উপত্যকা এখন বিধ্বস্ত।

ইসরায়েলের এই হামলায় ৫২ শিশুসহ গাজা উপত্যকায় নিহত ফিলিস্তিনির সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৮১ জনে। এছাড়া গাজা থেকে বিচ্ছিন্ন পশ্চিম তীরে নিহত হয়েছেন আরও ১৩ জন। এদিকে হামাসের ছোড়া রকেটে ইসরায়েলে দুই শিশুসহ ১০ জন প্রাণ হারিয়েছেন।

ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে গত কয়েক বছরে সবচেয়ে প্রাণঘাতী ও ভয়াবহ সামরিক সংঘাত নিয়ে আজ রবিবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ বৈঠক বসছে। তবে ইসরায়েলের মিত্র যুক্তরাষ্ট্রর বিরোধিতায় বৈঠকে উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ আসার সম্ভাবনা খুব কম।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, হামলা চলবেই। যত দিন প্রয়োজন, তত দিন হামলা চলবে। সাধারণ মানুষকে সুরক্ষা দিতে সবকিছু করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। বাইডেনের সঙ্গে ফোনালাপের পর নেতানিয়াহু এমন ঘোষণা দিয়েছেন।

এদিকে রবিবার সন্ধ্যায় গাজায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা ও মার্কিন বার্তা সংস্থা এপির কার্যালয় ধ্বংস করে দিয়েছে ইসরায়েল। হামলায় বহুতল ভবনটি ধসে পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যায়। এতে বেশকিছু অফিস ও আবাসিক ফ্ল্যাট ছিল।

মন্তব্য লিখুন :