তালেবানের প্রাণ ফিরিয়ে দিল ইরান!

তালেবান কর্তৃপক্ষের অনুরোধে ইরান আফগানিস্তানে জ্বালানি তেল সরবরাহ শুরু করেছে। যা যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগান তথা তালেবানের প্রাণ ফিরিয়ে দিয়েছে বলা যায়। ইরানের এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রের চলমান নিষেধাজ্ঞার বিপরীতে আফগানে তেল রপ্তানি শুরু হওয়ায় তারা স্বস্তিবোধ করছে। এদিকে তালেবান কর্তৃপক্ষও এখন স্বস্তিতে। আল জাজিরা।

সুন্নি মুসলিম গ্রুপ তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতায় বসতে যাচ্ছে। তারা দেশটির ওপর চেপে বসা পশ্চিমা তাবেদার সরকার ও যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীকে হটিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে।

খবরে বলা হচ্ছে, আফগানিস্তানে পেট্রোলসহ জ্বালানি তেলে দাম এখন আকাশচুম্বি। প্রতি টন পেট্রোলের দাম এখন ৯০০ মার্কিন ডলার। অনেকে তালেবানের ভয়ে শহর ছেড়েছে। তারা আর ফিরছে না। তারা মনে করছে, তালেবানের ২০ বছর আগের সেই শরিয়াহ আইন দেশে চাপিয়ে দেবে এবং পরিস্থিতি আগের মতোই ভয়াবহ হবে।

পরিস্থিতি অনুকূলে আনতে তালেবান কর্তৃপক্ষ ইরানের প্রতি তেল রপ্তানির প্রস্তাব দিয়েছে। তালেবান ইরানকে সীমান্ত খুলে দিয়ে সরাসরি বাণিজ্য করার বিষয়টি ইরানকে জানিয়েছে।

তেহরানের গ্যাস ও পেট্রোকেমিক্যাল প্রোডাক্ট এক্সপোর্টার্স ইউনিয়নের বোর্ড সদস্য হামিদ হোসেইনি বলছেন- ইরানের প্রতি তালেবানের বার্তা ছিল, ‘তোমরা আফগানে জ্বালানি তেল রপ্তানি করতে পার।’

তিনি বলেন, এর পর থেকে ইরানের কাস্টমস প্রশাসন আফগানিস্তানের ওপর থেকে তেল রপ্তানি নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়।

৬ আগস্ট থেকে যুদ্ধাবস্থার কারণে আফগানে তেল রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছিল ইরান। তালেবান কর্তৃপক্ষের ইতিবাচক মনোভাবের কারণে ইরান আবারও আফগানে তেল রপ্তানি করতে পারবে।

মন্তব্য লিখুন :