রেলপথে ভারত থেকে আসছে ৫০ হাজার টন চাল

ভারত থেকে রেলপথে ৫০ হাজার টন চাল আমদানি করা হচ্ছে। নন-বাসমতি সেদ্ধ এই চাল আনতে সরকারের মোট ব্যয় হবে ১৬৩ কোটি ৬৬ লাখ ৪০ হাজার টাকা। সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের এই প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (৫ মে) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল সভায় এ প্রস্তাবটি অনুমোদন দেওয়া হয় বলে বৈঠক শেষে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. শাহিদা আক্তার।

ড. শাহিদা আক্তার বলেন, ‘ভারতের মেসার্স সৌবিক এক্সপোর্টস লিমিটেড খাদ্য অধিদফতরকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন নন-বাসমতি সিদ্ধ চাল সরবরাহ করবে। প্রস্তাবটি অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।  প্রতি মেট্রিক টন চালের দাম ধরা হয়েছে ৩৮৬ মার্কিন ডলার। এই হিসাবে বাংলাদেশি টাকায় চালের মোট দাম দাঁড়াবে ১৬৩ কোটি ৬৬ লাখ ৪০ হাজার টাকা। প্রতিকেজি চালের দাম পড়বে ৩২ দশমিক ৭৩ টাকা।’

তিনি বলেন, ‘ভারতের ছত্তিশগড় রেল স্টেশন থেকে লোড হয়ে বাংলাদেশের বেনাপোল, দর্শনা ও রোহানপুর রেলবন্দর দিয়ে এই চাল দেশে প্রবেশ করবে।’

তিনি জানান, বৈঠকে ৪৬০ কোটি ৫ হাজার ৭৬৬ টাকা ব্যয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অধীন বাংলাদেশ শিক্ষা তথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরো (ব্যানবেইস) কর্তৃক ১৬০ উপজেলায় ‘স্টাবলিশমেন্ট অব আইসিটি ট্রেনিং অ্যান্ড রিসোর্স সেন্টার ফর এডুকেশন ফেস-২’ প্রকল্পের পূর্ত কাজ, যন্ত্রপাতি/সরঞ্জামাদি ও সেবা কার্যক্রম ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। কোরিয়ার তাইহান কনসোর্টিয়াম এসব যন্ত্রপাতি সরবরাহ করবে।

এছাড়াও মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অধীন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর কর্তৃক ‘সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (সেসিপ)’ প্রকল্পের আওতায় ৬৪০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভোকেশনাল শিক্ষা সরঞ্জাম বিতরণের জন্য লট-২ এবং ৪-এর আওতায় সর্বমোট ৫৬ কোটি ৩১ লাখ ৯৪ হাজার ১১০ টাকায় যন্ত্রপাতি ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

মন্তব্য লিখুন :