শিথিল লকডাউন, তবুও থাকছে নিষেধাজ্ঞা

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে শর্ত সাপেক্ষে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ তুলে নিয়েছে সরকার। করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেও ঈদের কথা বিবেচনায় নিয়ে আজ (১৪ জুলাই) দিবাগত রাত ১২টার পর থেকে টানা ৮ দিন বিধিনিষেধ শিথিল করা হয়েছে।

তবে নতুন কিছু নির্দেশনা দিয়ে বুধবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে পরিপত্র জারি করা হয়েছে। এতে মাস্ক পরিধান নিশ্চিত ও জনসমাগম এড়িয়ে চলার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে চিঠির মাধ্যমে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে তথ্য অধিদপ্তরের বিবরণীতে বলা হয়েছে।  

পর্যটন কেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্রে গমন ও জনসমাবেশ হয় এ ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠান যেমন- বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান (ওয়ালিমা), জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি এবং রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান পরিহার করতে হবে বলে পরিপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার লকডাউন শিথিল সংক্রান্ত মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, দেশের আর্থ সামাজিক অবস্থা ও অর্থনৈতিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখতে আগামী ১৪ জুলাই (বুধবার) মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই (শুক্রবার) সকাল ৬টা পর্যন্ত আরোপিত সব বিধিনিষেধ শিথিল করেছে সরকার। 

এতে আরও বলা হয়েছে, ঈদ উদযাপন, জনসাধারণের যাতায়াত, ঈদ পূর্ববর্তী ব্যবসা বাণিজ্য পরিচালনা, দেশের আর্থ সামাজিক অবস্থা এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় গত ১ জুলাই সকাল ৬টা থেকে শুরু হয় সাত দিনের সর্বাত্মক লকডাউন। এই বিধিনিষেধ ছিল ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত।পরে বিধিনিষেধের মেয়াদ আরও সাত দিন অর্থাৎ ১৪ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

মন্তব্য লিখুন :