ডুবে যাওয়া ফেরি উদ্ধারে আসছে ‘রুস্তম’

পাটুরিয়ায় আমানত শাহ ফেরিডুবির ঘটনায় তৃতীয় দিনের মতো চলছে উদ্ধার অভিযান। সকাল সাড়ে ৭টায় অভিযান শুরু হলেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত কোনো যানবাহন উদ্ধার করতে পারেননি উদ্ধারকারীরা।

এদিকে ঘটনার তিন দিন পর কর্তৃপক্ষ বলছে, উদ্ধারকারী জাহাজ ‘প্রত্যয়’ দিয়ে ফেরিটি উদ্ধার করা সম্ভব হবে না। এ জন্য রুস্তম নামের আরেকটি উদ্ধারকারী জাহাজ আনা হচ্ছে।

এদিন সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহণ কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদিক। তিনি ঘাটে এসেই সাংবাদিকদের উদ্ধারস্থল থেকে বের হয়ে যেতে বলেন।

এ সময় তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। শুধু তাই নয়, ঘটনাস্থল থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের ধাক্কা দিয়ে বের করে দেন তিনি।

এ ঘটনার পর কমোডর গোলাম সাদিক আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিকদের জানান, উদ্ধারকাজে অংশ নেওয়ার জন্য উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয়ের পরিবর্তে শিমুলিয়া থেকে রুস্তম নামের আরেকটি জাহাজ আসবে। সেটি বিকাল নাগাদ আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, ডুবে যাওয়া ফেরিতে থাকা চারটি যানবাহন উদ্ধারের পরই সেটি তোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সে ক্ষেত্রে বেসরকারি কোনো উদ্ধারকারী জাহাজের সহযোগিতা নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন :