বাংলাদেশ থেকে কৃষি শ্রমিক নিতে আগ্রহী গ্রিস

বাংলাদেশ থেকে অস্থায়ী ভিত্তিতে কৃষি শ্রমিক নিয়োগের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছে গ্রিস। গ্রিসের অভিবাসন বিষয়ক মন্ত্রী নোতিস মিতারাকি গত বুধবার এথেন্সে তার দপ্তরে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এ আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। এ সময় বৈধ ও নিরাপদ অভিবাসনকে উৎসাহিত করতে নীতিগত অবস্থান তুলে ধরেন।

এ ছাড়া, গ্রিসে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয়। আসুদ আহমেদ গ্রিসে কৃষিক্ষেত্রে কর্মরত বাংলাদেশি নাগরিকদের নিয়মিতকরণের বিষয়টি বিবেচনা করার জন্য মিতারাকিকে অনুরোধ করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশের কৃষি শ্রমিকদেরকে রেসিডেন্স পারমিট প্রদান অথবা কৃষি শ্রমিক হিসেবে নিবন্ধিত করার মাধ্যমে নিয়মিত করার প্রস্তাব দেন তিনি।

আসুদ আহমেদ বলেন, আইনগতভাবে নিয়মিত হলে এই বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি কৃষিশ্রমিক স্বাস্থ্য, নিরাপত্তা, আবাসন ও আইনগত সুবিধাসহ বৈধ নাগরিকদের জন্য প্রযোজ্য সব সুযোগ-সুবিধা পাবেন। নোতিস মিতারাকি বলেন, চলতি বছরের গ্রীক সরকার ১৫ হাজারের বেশি অনিয়মিতভাবে বসবাসকারি কৃষি শ্রমিকদের ওয়ার্ক পারমিট দেবে। তবে এ সময় তিনি অনিয়মিতভাবে আসা অভিবাসীদের সব আইনি প্রক্রিয়া শেষে নিজ নিজ দেশে সসম্মানে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে গ্রিক কঠোর অবস্থান আরও একবার তুলে ধরেন।

বাংলাদেশ থেকে কৃষি শ্রমিক নিয়োগের বিষয়ে আইনগত কাঠামো বা চুক্তি সম্পাদনের বিষয়ে আসুদ আহমেদের প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেন, গ্রিস বৈধভাবে কৃষি শ্রমিকদের নিয়োগে সহায়তা করতে প্রস্তুত। সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশের কৃষি শ্রমিকদের দুই বছর মেয়াদি কৃষি ভিসা প্রদান করা যৌক্তিক হবে বলে তিনি মত দেন। প্রবাসী বাংলাদেশিদের পেনশনের বিষয়টিও অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিষ্পন্ন করা হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশে ফিরে গ্রিস প্রবাসী বাংলাদেশিদের অবসরকাল যাপনের ক্ষেত্রে পেনশন প্রদানের বিষয়টি গ্রিস এবং বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে আলোচনাধীন।

সূত্র: দৈনিক ইনকিলাব

মন্তব্য লিখুন :