আবারো মুশফিক!

আবারো কাণ্ডারির ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে দেখা গেল মিস্টার ডিপেন্ডেবল খ্যাত মুশফিকুর রহিমকে। বরাবরের নিয়ে লঙ্কানদের বিপক্ষে আজকের ম্যাচে দেখা গিয়েছে তার অসাধারণ ক্রিকেটীয় রসায়ন। এই ম্যাচে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পেরেছে মুশি।

প্রথম ওডিআই তে একা হাতেই দলকে টেনে তুলেছিলেন খাদের কিনারা থেকে। এই ম্যাচেও যখন ব্যর্থ বাকি সব সতীর্থরা, ঠিক তখনও বুক চিতিয়ে  লড়াই করে গিয়েছে মুশফিকুর রহিম। পুরো ম্যাচে এক পাশ থেকে আগলে রেখেছেন দলকে। বাকিদের উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসার প্রতিযোগিতা দেখেছেন উইকেট এর অপর প্রান্ত থেকে। যেখানে বাকিরা লঙ্কান বোলারদের সামলাতে হিমশিম খেয়েছে সেখানে মুশফিক খুব স্বাচ্ছন্দেই সামলেছে উদানা, চামিরা, সান্দাকানদের। যার ফলস্বরূপ তুলে নিয়েছে ক্যারিয়ারের অষ্টম ওডিআই সেঞ্চুরি। আউট হওয়ার আগে ১২৭ বল খরচায় দর্শকদের উপহার দিয়েছে ১২৫ রানের ঝকঝকে একটি ইনিংস। এই ১২৫ রানের ইনিংসটির মাধ্যমে সতীর্থদের অনেক বার্তাই  দিয়েছেন মুশি। 

এর আগের ম্যাচেও মুশফিক সতীর্থদের এই একই বার্তা দিয়েছিলেন চাপের মাঝে থেকেও কিভাবে বড় রান করা যায় কিন্তু তা কতটুকু নিতে পেরেছে বাকিরা? তা নিয়ে সংশয় থেকে যায় এই ম্যাচের স্কোর বোর্ড দেখলে।

মুশফিকুর রহিমের কল্যাণে বাংলাদেশ ২৪৭ রানের মাঝারি টার্গেট দিয়েছে লঙ্কানদের। ইতোপূর্বে অনেকবার দলের খারাপ সময়ে দলকে ভালো সংগ্রহ এনে দিতে সক্ষম হয়েছেন মুশফিকুর রহিম। মুশফিকের হাত ধরে এর আগেও এসেছে অনেক ঐতিহাসিক জয়।

দলের বাকি সব খেলোয়াড়রা যদি মুশফিককে উপযুক্ত সঙ্গ দিয়ে নিজেদের নামের পাশে কিছু রান যোগ করতে পারত তবে দলীয় সংগ্রহ হতে পারত অনেক বড়।

মন্তব্য লিখুন :